kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৭ জুন ২০১৯। ১৩ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

বিপিএলে দেখা যেতে পারে ভারতীয় ক্রিকেটারদের!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ মে, ২০১৯ ২০:৪০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিপিএলে দেখা যেতে পারে ভারতীয় ক্রিকেটারদের!

অনেকদিন ধরেই জাতীয় দলে তার সুযোগ হচ্ছে। ভবিষ্যতে যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলবেন, তেমন কোনো সম্ভাবনাই নেই। যে কারণেই এবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের কথা ভাবছেন ভারতের হার্ডহিটিং ব্যাটসম্যান যুবরাজ সিং। অবসরের পর ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগে 'ফ্রিল্যান্সার ক্রিকেটার' হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে গড়তে চান সীমিত ওভারে ভারতের সেরা ক্রিকেটারদের একজন যুবরাজ। তার এই বক্তব্যের পর বিদেশি ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি লিগে অবসরে যাওয়া ক্রিকেটারদের খেলার অনুমতি দেওয়ার কথা ভাবছে বিসিসিআই। কারণ শুধু যুবরাজ নন; অনেক ক্রিকেটারই এমন দাবি জানিয়েছেন।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) কাছ থেকে অনুমতি পেলেই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন পাঞ্জাবের এই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান।  বিসিসিআইর এক কর্মকর্তা আজ রবিবার পিটিআইকে জানান, 'আন্তর্জাতিক এবং প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট থেকে অবসরের কথা ভাবছেন যুবরাজ সিং। তিনি বিসিসিআইর সঙ্গে কথা কলতে চান এবং জিটি-টোয়েন্টি (কানাডা) এবং আয়ারল্যান্ড-নেদারল্যান্ডসে ইউরো টি-টোয়েন্টি স্লামের মতো টুর্নামেন্টগুলো থেকে প্রস্তাব পাওয়ায় সেখানে খেলার বিষয়ে অনুমতি চেয়েছেন।' 

ইরফান পাঠান, অনেক বছর ধরে ভারতের জাতীয় দলে সুযোগ পান না। ছবি : ইন্টারনেট

সম্প্রতি ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) নিলামে নাম লিখিয়েছেন ইরফান পাঠান। তবে এখনো প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট খেলা পাঠান বিসিসিআইর কাছ থেকে অনুমতি চাননি। বিসিসিআইর উর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বলেন, 'ইরফানকে নিলাম থেকে নাম প্রত্যাহার করতে বলা হয়েছে। এখন যুবরাজকে নিয়েও একটা কথা ওঠায় আমাদের নিয়ম-নীতি পরীক্ষা করতে হবে। এমনকি সে যদি প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট থেকে অবসরও নেয় তথাপি সে বিসিসিআইয়ের তালিকাভুক্ত সক্রিয় একজন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার। নিয়ম-কানুন পরীক্ষা করতে হবে।'

কয়েক দিন আগে শেষ হওয়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলেছেন যুবরাজ। তবে খুব বেশি ম্যাচে সুযোগ পাননি। যার কারণে হয়তোবা নিজের ভবিষ্যত পরিকল্পনা নিয়ে তাকে বেশি ভাবাচ্ছে। যুবরাজ খেললে টি-টোয়েন্টি এবং ইউরো স্লাম অনেক বেশি প্রচারণা পেতে পারে। যুবরাজ নাকি বলেছেন, জহির খান এবং বীরেন্দ্র শেবাগ যদি দুবাইতে টি-টেন লিগ খেলতে পারে তবে তাকে কেন বিদেশি লিগে খেলার অনুমতি দেওয়া হবে না।

এর জবাবে সেই বোর্ড কর্মকর্তা বলেন, 'টি-টেন লিগ হয়তো আইসিসির অনুমোদন পেয়েছে। তবে একটা ভার্সন হিসেবে এখনো স্বীকৃতি পায়নি। তবে হ্যাঁ, ভবিষ্যতে যখন একটা ক্রিকেটার সমিতি গঠিত হবে তখন অবসর নেয়াদের বিবেচনায় আনা যেতে পারে।' প্রস্তাব পেলে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল), অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ লিগ (বিবিএল) কিংবা ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) মতো টুর্নামেন্টে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়া ক্রিকেটারদের অনুমতি দেয়া উচিত বলে নীতিগতভাবে সমর্থন করেন তিনি।


খবরটি ইউনিকোড থেকে বাংলা বিজয় ফন্টে কনভার্ট করা যাবে কালের কণ্ঠ Bangla Converter দিয়ে

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা