kalerkantho

বুধবার। ১৯ জুন ২০১৯। ৫ আষাঢ় ১৪২৬। ১৫ শাওয়াল ১৪৪০

'অধিনায়ক ঘুষ খেয়েছে' সরফরাজের বোকামিতে তুলকালাম!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ মে, ২০১৯ ১৬:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'অধিনায়ক ঘুষ খেয়েছে' সরফরাজের বোকামিতে তুলকালাম!

বিশ্বকাপের আগমুহূর্তে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে নাকানি চুবানি খাচ্ছে পাকিস্তান। ৫ ম্যাচের সিরিজ ইতিমধ্যেই ৩-০ ব্যবধানে হেরে বসেছে। আজকের ম্যাচ হেরে হোয়াইটওয়াশ হওয়ারও সম্ভাবনা রয়েছে। এর মাঝেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে এক কাণ্ড ঘটিয়ে সমালোচনার কবলে পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ খান। টম কারেনকে রান-আউট করেও আবেদন করেননি তিনি! তার এমন বোকামিতে বেজায় চটে গেছে পাকিস্তানি সমর্থকেরা। 

গত ১৭ মে শুক্রবার নটিংহামে পাকিস্তানের ৩৪০ রান তাড়া করে জিতেছে ইংল্যান্ড। স্বাগতিকদের এই জয়ে টম কারেনের ৩০ বলে ৩১ রান বেশ বড় ভূমিকা রেখেছে। কারেন আউট হওয়ার পর হাতে ৪ উইকেট রেখে ১৬ বলে ২২ রান দরকার ছিল ইংল্যান্ড। অথচ ইংল্যান্ডের এই বোলিং অলরাউন্ডার ব্যক্তিগত ৬ রানেই আউট হতে পারতেন। সেই সুযোগ হেলায় নষ্ট করেছেন স্বয়ং পাকিস্তানের অধিনায়ক ও উইকেটকিপার সরফরাজ আহমেদ। সেই রান-আউট হলে কিন্তু ম্যাচের ফল পাল্টেও যেতে পারত।

ইংল্যান্ডের ইনিংসের মোহাম্মদ হাসনাইনের করা ৪৩তম ওভারের দ্বিতীয় বলটি মিড উইকেটে ঠেলে দিয়েই রান নিতে চেয়েছিলেন টম কারেন। কিন্তু ননস্ট্রাইক প্রান্তে থাকা অপর অল-রাউন্ডার বেন স্টোকস রান নিতে চাননি। কারেনকে তিনি ফেরত পাঠান। ওদিকে ফিল্ডারের থ্রো স্টাম্পে লাগলেও রান-আউট হওয়া থেকে কোনোমতে বেঁচে যান কারেন। কিন্তু বল সরাসরি স্টাম্পে লেগে ফাঁকা জায়গায় চলে গেলে ২ রান নিতে যান স্টোকস-কারেন। আর তখনই ঘটে সেই ঘটনা।

প্রথম রান ঠিকঠাক হলেও দ্বিতীয় রান নেওয়ার সময় ফিল্ডারের থ্রো পেয়ে কারেনের প্রান্তের স্টাম্প ভাঙেন সরফরাজ। আশ্চর্যের বিষয়, স্টাম্প ভেঙে সরফরাজ আউটের আবেদন করেননি! পরে ভিডিও রিপ্লেতে দেখা গেছে, ওটা পরিস্কার আউট ছিল! এই দৃশ্য দেখে পাকিস্তানি সমর্থকেরা চটে যায়। 'সফরাজ ঘুষ খেয়ে' এই কাণ্ড করেছে বলে সোচ্চার হয় সবাই। শেষ পর্যন্ত সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি পরিস্কার করতে বাধ্য হন সরফরাজ, 'আমি ভেবেছিলাম বেলস দুটি আগেই পড়েছে। ভেবেছিলাম থার্ড আম্পায়ার টিভি রিপ্লেতে দেখে থাকলে তা মাঠের আম্পায়ারকে বলবে।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা