kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

ড্রেসিংরুমে প্রথম শিরোপা জয়ের উদযাপন যেমন হলো

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ মে, ২০১৯ ১৮:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ড্রেসিংরুমে প্রথম শিরোপা জয়ের উদযাপন যেমন হলো

ছবি : সংগৃহীত

প্রতিটি জয়ের পরেই কমবেশি উদযাপন করে থাকে টাইগাররা। বিশ্বের প্রতিটি দলই তা করে থাকে। ইদানিং সোশ্যাল সাইটের কল্যাণে সেইসব উদযাপনের ছবি সাধারণ মানুষের কাছে চলে আসে। একটা সময় একটি ম্যাচ জিতলেই বিশাল উদযাপন করত বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা। সারা মাঠ দৌঁড়ে 'ল্যাপ অব অনার' দিত। নানা ভঙ্গিমায় নাচানাচি তো ছিলই। সময়ের পরিবর্তনের সঙ্গে বাংলাদেশ এখন 'বড় দল' তকমা পেয়ে গেছে। যে কারণে উদযাপনেও আর আগের মতো পাগলামি দেখা যায় না। ম্যাচ জয়ের পর সবাই একটু 'ভাব' নিয়ে থাকতেই ভালোবাসে।

যেমন গতকাল শুক্রবার প্রথম শিরোপা জয়ের পর খুশিতে ভেসে যায়নি বাংলাদেশ দল। ড্রেসিং রুমের সামনে অপেক্ষমান ক্রিকেটারদের উচ্ছ্বাস অবশ্য যথেষ্টই প্রাণবন্ত ছিল। তবে সেটার মধ্যেও একটা 'ভাব' রয়েছে। মাঠে থাকা দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যানের উদযাপনে ছিল না চোখে পড়ার মতো উচ্ছ্বাস। হই হুল্লোর যেটুকু হয়েছে সেটা ট্রফি হাতে দলীয় ছবি তোলার সময়। এক পর্যায়ে অধিনায়ক মাশরাফি কোচিং স্টাফ, টিম বয়, ম্যাসেজম্যান সবাইকে ডেকে সেই উদযাপনে সামিল করেন। দলীয় ছবি শেষে শুরু হয় ট্রফি হাতে একক ছবি তোলার পালা। যে ছবিগুলো এখন সোশ্যাল সাইটে ঘুরছে।

বাইরের উদযাপন শেষে এবার ড্রেসিংরুমে ফেরার পালা। মূল উদযাপনটা সবসময় এখানেই হয়ে থাকে, সাধারণের দৃষ্টির অন্তরালে। প্রথমে সবাই গোল হয়ে দাঁড়িয়ে কোচ স্টিভ রোডস এবং অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার বক্তব্য শুনলেন। এরপরেই শুরু হলো উল্লাস। যে যেভাবে পারেন নাচতে শুরু করলেন। চলল ট্রফি নিয়ে আরেকদফা ছবি তোলা। সবচেয়ে বেশি আনন্দ করছিলেন মুশফিক। 'সিনিয়র' হলেও জুনিয়ররা তার সঙ্গেই ট্রফি নিয়ে মজায় মেতে উঠেছিল। ছিলেন ইনজুরি আক্রান্ত সাকিব আল হাসান। এককসময় লম্বা সময় ধরে এসব উদযাপন চলত। কিন্তু গতকাল তা হয়নি।

এদিন যা মজা করার কম সময়ের মাঝেই করতে হয়েছে। এর কারণ হলো বিমান ধরার তাড়া। কিছু ক্রিকেটার উড়াল দিয়েছেন ইংল্যান্ডের উদ্দেশ্যে; কেউ যাচ্ছেন ছুটি কাটাতে; আবার কিছু ক্রিকেটার দেশে ফিরেছেন। বৃষ্টিতে ম্যাচের সময় নষ্ট হওয়ায় বাংলাদেশের বিজয় সঙ্গীত 'আমরা করব জয়' কোরাস কিংবা দলীয় কেক কাটা কোনোটাই হয়নি এবার। সংক্ষিপ্ত উদযাপন করে খাওয়া-দাওয়া সেরে সবাই রওনা দেন যার যার গন্তব্যে। বড় উদযাপনটা কি তবে বিশ্বকাপের জন্যই তোলা থাকল?

মন্তব্য