kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

টাইগারদের হাতে প্রথম শিরোপা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ মে, ২০১৯ ০০:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টাইগারদের হাতে প্রথম শিরোপা

অবশেষে 'লাকি সেভেন' ফলে গেল বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের জন্য। এর আগে ৬টি ফাইনালে হেরেছে টাইগাররা। এবার আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা টাইগারদের হাতে উঠল।
 
প্রথমবারের মতো তিন বা এর বেশি দেশের অংশগ্রহণে কোনো টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতল বাংলাদেশ পুরুষ দল। এর আগে ২০১৮ সালের জুনে এশিয়া কাপের ফাইনালে শক্তিশালী ভারতকে হারিয়ে দেশকে প্রথম শিরোপা এনে দিয়েছিল জাতীয় নারী ক্রিকেট দল। 
 
টস জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাট করতে নামার পর ২০.১ ওভারে বিনা উইকেটে ১৩১ রান তোলার পরই নামে বৃষ্টি। সে অবস্থায় দীর্ঘ সময় ধরে খেলা বন্ধ থাকার পর আবার বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১০টায় খেলা শুরুর ঘোষণা দেওয়া হয়।
 
ওয়েস্ট ইন্ডিজ করল ২৪ ওভারে ১৫২ রান। জিততে হলে বাংলাদেশকে করতে হবে ২১০ রান। ক্রিকেটের অদ্ভূত বৃষ্টি আইন এটা। ডাকওয়ার্থ আর লুইস তৈরি করেছেন এই গাণিতিক হিসাব-নিকাশ।
 
লক্ষ্যটা ছিল কঠিন। তবে ঝড় তুলে উড়ন্ত সূচনা এনে দিয়েছিলেন সৌম্য সরকার। দুইবার কাছাকাছি সময়ে জোড়া উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। সমীকরণ হয়ে গিয়েছিল কঠিন। বিধ্বংসী ইনিংসে সেই সমীকরণ মেলালেন মোসাদ্দেক হোসেন। কাটালেন ফাইনালের গেরো। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে প্রথম শিরোপা জিতল বাংলাদেশ।
 
সপ্তম চেষ্টায় কাটল ফাইনালের গেরো। মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে মোসাদ্দেক হোসেনের বিস্ফোরক এক জুটিতে ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা জিতে নিল বাংলাদেশ।
 
এক সময়ে ৩ ওভারে বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল ২৭ রান। ফ্যাবিয়ান অ্যালেনের এক ওভার থেকে ২৫ রান নিয়ে মোসাদ্দেক দলকে নিয়ে যান জয়ের প্রান্তে। বাকিটা সারেন দায়িত্বশীল ব্যাটিং করা মাহমুদউল্লাহ। বাউন্ডারিতে শেষ করে আসেন ম্যাচ।
 
ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে ৫ উইকেটে জিতেছে বাংলাদেশ। ২১০ রানের লক্ষ্য পেরিয়ে গেছে ৭ বল বাকি থাকতে।
 
২৪ বলে পাঁচ ছক্কা ও দুই চারে ৫২ রানে অপরাজিত থাকেন মোসাদ্দেক, ২১ বলে ১৯ রানে মাহমুদউল্লাহ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা