kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ মে ২০১৯। ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৮ রমজান ১৪৪০

ফিক্সিংয়ের প্রতিবাদ করায় আমার ক্যারিয়ার ধ্বংস হয়েছে : আকিব জাভেদ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ এপ্রিল, ২০১৯ ২১:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফিক্সিংয়ের প্রতিবাদ করায় আমার ক্যারিয়ার ধ্বংস হয়েছে : আকিব জাভেদ

আসন্ন ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা যাতে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের মতো কোনো অপরাধে জড়িয়ে দেশের মান সম্মান ডোবাতে না পারে, সেজন্য কঠোর পদক্ষেপের ঘোষণা দিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। কড়া নজরদারির মধ্যে রাখা হবে ক্রিকেটারদের। এর মাঝেই বোমা ফাটালেন সাবেক পাকিস্তানি ফাস্ট বোলার আকিব জাভেদ। ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রতিবাদ করাতেই নাকি তার ক্যারিয়ার লম্বা হয়নি বলে দাবি এই সাবেক তারকার। তার এই বক্তব্য যে পাকিস্তান ক্রিকেটে রীতিমতো অস্বস্তির জন্ম দিয়েছে, তা বলে দিতে হয় না।

ক্রিকেট পাকিস্তানকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে পিএসএল দল লাহোর কালান্দার্সের প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করা ৪৬ বছর বয়সী জাভেদ বলেন, 'যখন আমি ফিক্সিংয়ের ব্যাপারে জেনেছি, এর বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থান নিয়েছিলাম। বিদেশ সফরের আগে আমাকে সবসময় পার্শ্বচরিত্র করে রাখা হতো।  এখন আমি পুরোপুরি বিশ্বাস করি, এই অবস্থানের কারণেই আমার ক্যারিয়ার লম্বা হয়নি। যদিও আমার তখনকার অবস্থান নিয়ে এখন কোনো অনুশোচনা নেই।'

১৯৯২ সালের বিশ্বকাপজয়ী পাকিস্তান দলের অংশ ছিলেন আকিব জাভেদ। নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে অসন্তুষ্টি থাকলেও আসন্ন বিশ্বকাপে বর্তমান পাকিস্তান দলকে নিয়ে তিনি আশাবাদী, 'ইংল্যান্ডের মাটিতে পাকিস্তানের অতীতের রেকর্ড আমাকে এবার আশাবাদী করছে। সাত-আট নম্বরে ফাহিম আশরাফ, ইমাদ ওয়াসিমদের মতো বোলিং অল-রাউন্ডাররা যেকোনো রান চেইজ করায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এছাড়া হাফিজের মতো অভিজ্ঞরা তো আছেই। এই দলটি অনেক ব্যালেন্সড।'

বহুদিন ধরেই দুবাইকে 'হোম ভেন্যু' হিসেবে ব্যবহার করে আসছে জঙ্গি আক্রান্ত পাকিস্তান। এ বিষয়টিকে মোটেও ভালো চোখে দেখছেন না আকিব জাভেদ। তার মতে, 'দুবাইয়ের শূন্য স্টেডিয়াম দেখে মানুষ টেস্ট ক্রিকেট থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে। এটা দর্শকদের টিভির সামনে বসে খেলা দেখতে উৎসাহিত করছে। পাকিস্তান যদি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ খেলতে চায়, তবে সেটা অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে খেললেই পারে। সেখানে টেস্ট ক্রিকেট নিয়ে দর্শকদের আগ্রহও অনেক বেশি।'

মন্তব্য