kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ মে ২০১৯। ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৮ রমজান ১৪৪০

বিশ্বকাপে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ওপর কঠোর নজরদারি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ এপ্রিল, ২০১৯ ১৮:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিশ্বকাপে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ওপর কঠোর নজরদারি

অদ্ভুত এক রাষ্ট্র পাকিস্তান। মুখে মুখে ধর্মের কথা বললেও কাজে কর্মে তার বিন্দুমাত্র প্রতিফল দেখা যায় না। পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দলের কথাই ধরুন। নারী কেলেঙ্কারি, মাদক গ্রহণ, ম্যাচ ফিক্সিং, গোপনে টিম হোটেল ছেড়ে বাইরে আমোদ ফুর্তির মতো অপরাধ দেশটির ক্রিকেটাঙ্গনে নিয়মিত ঘটনা। বিদেশ সফরে গেলে যেন আরও বেশি অপরাধপ্রবণ হয়ে যায় পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। অতীত ইতিহাস যার প্রমাণ দেয়। তাই এবার কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড পিসিবি।

আসন্ন ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে স্ত্রী-বান্ধবীদের নিয়ে যেতে পারবেন না সরফরাজ আহমেদরা। শুধু তাই নয়, তাদের ওপর জারি করা হয়েছে একগুচ্ছ নিষেধাজ্ঞা। বিদেশের মাটিতে কোনো অপকর্ম করে ক্রিকেটাররা যাতে দেশের মান না ডুবাতে পারে, সেজন্য কঠোর নজরদারির নির্দেশ দিয়েছে পিসিবি। অপরিচিত কারও সঙ্গে সাক্ষাত এবং তাদের সঙ্গে উপহার আদান-প্রদান এড়িয়ে চলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ক্রিকেটারদের। এছাড়া দলের ম্যানেজার এবং নিরাপত্তা কর্মকর্তার অনুমতি ছাড়া ক্রিকেটারদের টিম হোটেলের বাইরে যাওয়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

ইংল্যান্ডের মাটিতে ২০১০ সালে স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারি করে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমির। যাকে এবারের বিশ্বকাপ দলে রাখা হয়নি। গত বছর লর্ডসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের প্রথম দিনে পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের স্মার্ট ওয়াচ পরা নিয়ে তুমুল বিতর্ক হয়েছিল। এক কথায়, পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ঠিক বিশ্বাস করতে পারে না ইংলিশ গণমাধ্যম। যে কারণে মিডিয়া এমনকী সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ক্রিকেটারদের দূরে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পিসিবি প্রধান এহসান মানি বলেছেন, ইংল্যন্ডে গিয়ে মিডিয়ার কাছে ক্রিকেটারদের একমাত্র কাজ হওয়া উচিত সতীর্থদের প্রশংসা করা।

মন্তব্য