kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ মে ২০১৯। ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৮ রমজান ১৪৪০

তানবীর-নুরুলের নৈপুণ্যে শেখ জামালের জয়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ এপ্রিল, ২০১৯ ২১:১৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তানবীর-নুরুলের নৈপুণ্যে শেখ জামালের জয়

লেগ স্পিনার তানবীর হায়দারের ৪ উইকেট ও অধিনায়ক নুরুল হাসানের অনবদ্য ৮৩ রানের সুবাদে সুপার সিক্সে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে সহজ জয় তুলে নিয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। আজ বৃহস্পতিবার শেখ জামাল ৭ উইকেটে হারায় মোহামেডান স্পোটিং ক্লাবকে। এখন পর্যন্ত সুপার লিগের তিন ম্যাচই হারল মোহামেডান। ফলে ১৪ ম্যাচে ৬ জয় ও ৮ হারে ৬ষ্ঠ স্থানে থাকা দলটির সংগ্রহ ১২ পয়েন্ট। সমানসংখ্যক ম্যাচে ৯ জয় ৫ হারে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তৃতীয় স্থানে উঠল শেখ জামাল।

ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ে নামে শেখ জামাল। প্রথমে ব্যাট করার সুযোগটা ভালোভাবে কাজে লাগাতে পারেনি মোহামেডান। ৪৪.৪ ওভারে ১৫৯ রানেই গুটিয়ে যায় তারা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৬ রান করেন তুষার ইমরান। এছাড়া লিটন দাস ২৬, মোহাম্মদ আশরাফুল ২১ ও রাহাতুল ফেরদৌস ১৬ রান করেন।

অষ্টম বোলার হিসেবে আক্রমনে এসে তুষারসহ মোহামেডানের শেষের দিকের ব্যাটসম্যানদের নিজের শিকার বানিয়েছেন তানবীর। মাত্র ৪.৪ ওভার হাত ঘুড়িয়ে ১৬ রানে ৪ উইকেট নেন তিনি। পেসার খালেদ আহমেদ নেন ২ উইকেট।

১৬০ রানের সহজ লক্ষ্যে খেলতে নেমে বেকাদায় পড়ে যায় শেখ জামাল। ১৩ রানে ২ উইকেট হারিয়ে ফেলে তারা। ইলিয়াস সানি ৮ ও তাইজুল ইসলাম ১ রান করে আউট হন। এরপর দলকে খেলায় ফেরানোর চেষ্টা করে সফল হয়েছেন ওপেনার ইমতিয়াজ হোসেন ও অধিনায়ক নুরুল। তৃতীয় উইকেটে ১২০ রানের মূল্যবান জুটি গড়েন তারা। দুজনই হাফ-সেঞ্চুরি তুলে নেন।

হাফ-সেঞ্চুরির পর ইমতিয়াজ থামলেও দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন নুরুল। ইমতিয়াজ ৮৮ বলে ৭ চার ও ১ ছক্কায় ৫৪ রান করেন। অধিনায়ক নুরুল ৮৫ বলে ৯ চার ও ১ ছক্কায় অপরাজিত ৮৩ রান করেন। তার সাথে ১৫ রান নিয়ে অপরাজিত ছিলেন শ্রীলঙ্কার দিলশান মুনারাবিরা। ম্যাচ সেরা হয়েছেন শেখ জামালের নুরুল হাসান সোহান।

মন্তব্য