kalerkantho

মঙ্গলবার । ২২ অক্টোবর ২০১৯। ৬ কাতির্ক ১৪২৬। ২২ সফর ১৪৪১            

১১ বছর পর টাইগার উডসের গর্জন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০৯:৩৭ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



১১ বছর পর টাইগার উডসের গর্জন

থম মাস্টার্স জিতেছিলেন ২২ বছর আগে। শেষ হোলে বল ফেলার পর জড়িয়ে ধরেন বাবা আর্ল। দুই দশক পর আরো এক সাফল্যের এপ্রিল। টাইগার উডস এখন নিজেই বাবা। সন্তানদের সামনে গত পরশু এই কিংবদন্তি গড়লেন ক্রীড়াঙ্গনেরই ফিরে আসার অন্যতম সেরা নজির। জিতলেন অগাস্টা মাস্টার্স। গত ১১ বছর কোনো মেজর জেতেননি টাইগার। নারী কেলেঙ্কারি আর চোট জর্জরিত টাইগারের শেষও দেখে ফেলেছিলেন অনেকে। দুই বছর আগে তিনি নিজেও ভাবেননি আর নামতে পারবেন গলফ কোর্সে। বাধার পাহাড় ডিঙিয়ে মর্যাদার মাস্টার্স জিতলেন এক শটের ব্যবধানে। সব মিলিয়ে তাঁর স্কোর ১৩ আন্ডার। ১২ আন্ডার নিয়ে দ্বিতীয় হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রেরই ডাস্টিন জনসন, জান্ডের স্কাফিলেল ও ব্রুকস কোপকা। শুরু থেকে এগিয়ে থাকা ইতালির ফ্রান্সেসকো মোলিনারি ১৫ নম্বর হোলের তৃতীয় শট ফেলেন পানিতে। মেজর জেতার স্বপ্নটাও ভেসে যায় পানিতে।

টাইগার উডস শেষ শটটা নেওয়ার পরই মুষ্টিবদ্ধ হাত ছুড়ে মারেন শূণ্যে। বাঘের গর্জনই করছিলেন যেন। ছুটে এসে জড়িয়ে ধরেন সন্তান, বান্ধবী আর মাকে। দর্শকরা ভাসাচ্ছিলেন করতালিতে। আবেগী গলায় বলছিলেন, ‘প্রথম যখন মাস্টার্স জিতি তখন জড়িয়ে ধরেছিলেন আমার বাবা। এখন আমিই বাবা হয়েছি। খুব ভালো লাগছে ওদের সামনে একটা মেজর জিতে। আফসোস ছিল সন্তানরা বড় হওয়ার পর ওদের বাবাকে মেজর জিততে দেখেনি। দূর হলো সেটা। এটা সত্যিই খুব আবেগী এক মুহূর্ত। আরো একটা মেজর জেতা বিশেষ কিছু।’

ক্যারিয়ারে এবারই প্রথম পিছিয়ে থেকে কোনো মেজর জিতলেন টাইগার উডস। মাস্টার্স জিতেছেন ৪৩ বছর বয়সে যা সবচেয়ে বেশি বয়সে এই শিরোপা জেতার দ্বিতীয় নজির। ১৯৮৬ সালে জ্যাক নিকোলাস জেতেন ৪৬ বছর বয়সে। এটা টাইগারের পঞ্চম মাস্টার্স, এখানে তাঁর চেয়ে একটি বেশি শিরোপা নিকোলাসের। সব মিলিয়ে টাইগার জিতলেন ১৫তম মেজর। সর্বকালের সর্বোচ্চ ১৮ গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের কীর্তিটাও নিকোলাসেরই। ১১ বছর পর টাইগারের গর্জন দেখে সেই নিকোলাস ভোলেননি শুভেচ্ছা জানাতে, ‘টাইগারকে অভিনন্দন। ওর জন্য, গলফ খেলাটার জন্যও আমি খুশি। অসাধারণ ব্যাপার।’

২০০৯ সালে ফাঁস হতে থাকে টাইগার উডসের একের পর এক নারী কেলেঙ্কারি। ছাড়াছাড়ি হয়ে যায় স্ত্রীর সঙ্গে। হয়ে পড়েন মাদকাসক্ত। এর সঙ্গে নানা চোটে পড়ে বারবার যেতে হয় সার্জনের ছুরির তলায়। র‍্যাংকিংয়ে পিছিয়ে পড়েন ১১৯৯ নম্বরে। দুই বছর আগে চতুর্থবার পিঠের অস্ত্রোপচারের পর গলফ কোর্সে ফেরার আশা ছেড়ে দেন তিনিই। ২০১৭ সালে গ্রেপ্তারও হন অ্যালকোহল নিয়ে গাড়ি চালিয়ে। তবে রূপকথাকে হার মানিয়ে গত বছর জেতেন ট্যুর চ্যাম্পিয়নশিপ। ফিরে পান র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থানের হারানো মুকুট। বাকি ছিল শুধু একটি মেজর জয়। ১১ বছর পর জিতলেন সেটাও। এ জন্য ভাসছেন অভিনন্দনের জোয়ারে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের টুইট, ‘অভিনন্দন টাইগার। সত্যিকারের কিংবদন্তি।’

টেনিসের ২৩ গ্র্যান্ড স্লামজয়ী সেরেনা উইলিয়ামসের অভিনন্দন, ‘টাইগার উডসকে দেখে চোখে পানি এসে গিয়েছিল, তাঁর মতো আর কেউ নেই। এভাবে বারবার অস্ত্রোপচারের পরও ফিরে আসা অসাধারণ, তোমাকে দেখে অনুপ্রাণিত হই।’ ২০০৫ সালে জয়ের ১৪ বছর পর আবারও মাস্টার্স জয়ের অনন্য নজির গড়েছেন টাইগার। ১৯৬১-র পর ১৯৭৪ সালে ১৩ বছরের ব্যবধানে জেতার আগের কীর্তিটা গ্যারি প্লেয়ারের। দক্ষিণ আফ্রিকান এই তারকাও অভিভূত টাইগারের এমন সাফল্যে, ‘এক কথায় অবিশ্বাস্য।’

►       ২০০৫ সালের পর জিতলেন প্রথম মাস্টার্স। জ্যাক নিকোলাসের ষষ্ঠ মাস্টার্স শিরোপার চেয়ে পিছিয়ে আর একটি।

►       ১০ বছর ৯ মাস ২৯ দিন পর টাইগার উডস জিতলেন কোনো মেজর।

►       মেজর ইতিহাসে এবারই প্রথম ফাইনাল রাউন্ডে পিছিয়ে থেকে শিরোপা জিতেছেন তিনি।

►       জ্যাক নিকোলাসের ১৮ মেজরের চেয়ে পিছিয়ে আর ৩টিতে

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা