kalerkantho

মঙ্গলবার । ২২ অক্টোবর ২০১৯। ৬ কাতির্ক ১৪২৬। ২২ সফর ১৪৪১            

নাঈমের সেঞ্চুরিতে মোহামেডানকে হারাল রূপগঞ্জ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ এপ্রিল, ২০১৯ ২১:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নাঈমের সেঞ্চুরিতে মোহামেডানকে হারাল রূপগঞ্জ

অধিনায়ক নাইম ইসলামের অনবদ্য সেঞ্চুরিতে জয় দিয়ে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের সুপার সিক্স পর্ব শুরু করল লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। আজ সোমবার সুপার সিক্সের প্রথম দিন তারা ৪৬ রানে হারিয়েছে মোহামেডান স্পোটিং ক্লাবকে। এই জয়ে ১২ ম্যাচে ১১ জয় ও ১ হারে ২২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষস্থান ধরে রাখল রূপগঞ্জ। ২০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থেকে সুপার সিক্সে উঠেছিল দলটি। সমান সংখ্যক ম্যাচে ৬ জয় ও ৬ হারে ১২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে মোহামেডান।

সাভারের বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করতে নামে মোহামেডান। ব্যাট হাতে ভালো শুরু করতে পারেনি রূপগঞ্জ। দলীয় ২৯ রানে প্রথম উইকেট হারায় তারা। ১৪ রান করে ফিরে যান মেহেদি মারুফ। এরপর শুরুর ধাক্কা সামাল দেন আরেক ওপেনার মোহাম্মদ নাইম ও মোমিনুল হক। ৩৪ রানের জুটি গড়েন তারা। নাইম ২৬ রানে থামলে অধিনায়ক নাইমকে নিয়ে বড় জুটি গড়েন মুমিনুল। হাফ-সেঞ্চুরির করে ৭৮ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরেন তিনি। 

তবে ঠিকই সেঞ্চুরি তুলে নেন অধিনায়ক নাইম। তৃতীয় উইকেটে মুমিনুলের সঙ্গে ১০৭ রানের জুটির পর চতুর্থ উইকেটে শাহরিয়ার নাফীসের সাথে ১২১ রান যোগ করেন নাইম। তার ১০৮ বলে অপরাজিত ১০৮ রানের ইনিংসটি ছিল ৪টি চার ও ৩টি ছক্কায় সাজানো। নাফীস ৬১ বলে ৬ চার ও ২ ছক্কায় করেন ৬৮ রান। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৩১৩ রানের বড় সংগ্রহ পায় রূপগঞ্জ।

জয়ের জন্য ৩১৪ রানের লক্ষ্যে শুরুটা ভালো করেও ৭১ রানে ২ উইকেট হারায় মোহামেডান। এরপর জোড়া-হাফ সেঞ্চুরিতে দলকে লড়াইয়ে রেখেছিলেন ইরফান শুক্কুর (৭৩) ও রকিবুল হাসান (৫৮)। কিন্তু দলীয় ১৮৮ রানের মধ্যে শুক্কুর ও রকিবুলের বিদায়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে মোহামেডান। পরের দিকে আর কোন ব্যাটসম্যানই বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত ৪৬.২ ওভারে ২৬৭ রানে অলআউট হয় ঐতিহ্যবাহী দলটি। রূপগঞ্জের পেসার শুভাশিষ ৫৬ রানে ৩ উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হন রুপগঞ্জের অধিনায়ক নাইম।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা