kalerkantho

বিধ্বংসী বোলিংয়ে বিশ্বকাপ 'পাকা' করে ফেললেন সাইফউদ্দিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ এপ্রিল, ২০১৯ ২০:০৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিধ্বংসী বোলিংয়ে বিশ্বকাপ 'পাকা' করে ফেললেন সাইফউদ্দিন

ফাইল ছবি

মিডিয়াম পেসার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের আগুন ঝড়ানো বোলিংয়ে বড় জয় দিয়ে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের সুপার সিক্স পর্ব শুরু করল আবাহনী লিমিটেড। আজ সুপার সিক্সে প্রথম দিন ও নিজেদের প্রথম ম্যাচে আবাহনী ১৬৫ রানের ব্যবধানে হারিয়েছে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোটিং ক্লাবকে। বিশ্বকাপ দল ঘোষণার আগমুহূর্তে মাত্র ৯ রান দিয়ে ৫ উইকেট নিয়ে ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছেন সাইফউদ্দিন। আজ ম্যাচ শেষে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান জানিয়ে দিয়েছেন- 'সাইফউদ্দীন যাচ্ছে'।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্বান্ত নেয় প্রাইম দোলেশ্বর। দুই পেসার আবু জায়েদ ও ফরহাদ রেজা ইনিংসের শুরুতেই চেপে ধরেন আবাহনীকে। ১২ রান উঠতেই আবাহনীর প্রথম তিন ব্যাটসম্যানকে প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান জায়েদ-রেজা। এরমধ্যে জায়েদ দুটি উইকেট নেন। দুই ওপেনার ইনফর্ম জহিরুল ইসলাম ১, সৌম্য সরকার ২ ও ব্যাটিংয়ে প্রমোশন নিয়ে তিন নম্বরে নামা মেহেদি হাসান মিরাজ ৫ রান করে ফিরেন।

২৮ বলের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে খাদের কিনারায় পড়ে যায় আবাহনী। সেখান থেকে দলকে তুলে আনার মিশনে নামেন ভারতীয় ক্রিকেটার ওয়াসিম জাফর এবং নাজমুল হোসেন শান্ত। নিজেদের পরিকল্পনায় সফল হয়েছে এই জুটি। প্রতিপক্ষের বোলিং লাইন-লেন্থ বুঝে ব্যাট করতে থাকেন তারা। এক পর্যায়ে দুজনই হাফ-সেঞ্চুরি তুলে নেন। ৯৭ বলে ৬টি চারে ৭১ রান করা জাফরকে শিকার করে চতুর্থ উইকেটে ১৪৬ রানের জুটি ভাঙেন সানি।

সানির বিদায়ের পর ব্যক্তিগত ৭০ রানে থেমে যান শান্ত। তার ৮৩ বলের ইনিংসে ৪টি চার ও ২টি ছক্কা ছিল। দুই হাফ-সেঞ্চুরিয়ানের বিদায়ের পর মোহাম্মদ মিথুনের ৪১ ও বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার ২১ বলে ২৪ রানে ভর করে ৪৯ ওভারে ২৫১ রানে অল-আউট হয় আবাহনী। প্রাইম দোলেশ্বরের জায়েদ ৩টি ও রেজা-সাইফ হাসান ২টি করে উইকেট নেন।

জয়ের জন্য ২৫২ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে আবাহনীর পেসার সাইফউদ্দিনের আগুন ঝড়ানো বোলিংয়ের মুখে পড়ে প্রাইম দোলেশ্বরের টপ-অর্ডার। ৩৪ রানে প্রাইম দোলেশ্বরের পাঁচ ব্যাটসম্যানকে প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান সাইফউদ্দিন। এরপর আর ঘুড়ে দাঁড়াতে পারেনি প্রাইম দোলেশ্বর। এসময় আবাহনীর বাকী বোলাররাও জ্বলে ওঠেন। যে কারণে ২৯.৪ ওভারে মাত্র ৮৬ রানে গুটিয়ে যায় প্রাইম দোলেশ্বর। ৬ ওভারে ৯ রানে ৫ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হয়েছেন সাইফউদ্দিন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা