kalerkantho

সোমবার । ২৬ আগস্ট ২০১৯। ১১ ভাদ্র ১৪২৬। ২৪ জিলহজ ১৪৪০

ভারত-অস্ট্রেলিয়া সমানে সমানে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৯:১৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারত-অস্ট্রেলিয়া সমানে সমানে

ছবি : এএফপি

টস জিতে আগে ব্যাটিং করে ভারতের বিপক্ষে পার্থ টেস্টের প্রথম দিন শেষে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ৬ উইকেটে ২৭৭ রান। হাফ সেঞ্চুরি পেয়েছেন তিন ব্যাটসম্যান। ভারত-অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার চার ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। টস লড়াইয়ে জিতেই আগে ব্যাটিং বেছে নেয় অ্যাডিলেড টেস্টে হারা অস্ট্রেলিয়া। দুই ওপেনার মার্কাস হ্যারিস ও অ্যারন ফিঞ্চ দলকে ভালো সূচনা এনে দেন।৩৫.২ ওভারে ১১২ রানের জুটি গড়েন দুজন। 

অস্ট্রেলিয়ার প্রথম উইকেট পতনের জন্য পাঁচ বোলার ব্যবহার করতে হওয়ায় চিন্তায় পড়তে হয় ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে। ৬টি চারে ৫০ রান করা ফিঞ্চকে আউট করে মধ্যাহ্ন-বিরতির পর ভারতকে প্রথম সাফল্য এনে দেন ভারতের পেসার জসপ্রিত বুমরাহ।তবে প্রথম উইকেট পতনের পরই ভারতকে দ্রুত আরও ৩টি সাফল্য এনে দেন পেসাররা। ১ উইকেটে ১১২ রান থেকে অস্ট্রেলিয়ার স্কোর ৪ উইকেটে ১৪৮ রানে পরিণত হয়। উসমান খাজাকে ৫ রানে উমেশ যাদব, হ্যারিসকে ৭০ রানে হনুমা বিহারি ও পিটার হ্যান্ডসকম্বকে ৭ রানে থামিয়ে দেন ইশান্ত শর্মা। ফলে ভালো শুরুর পরও চা-বিরতির আগে চাপে পড়ে যায় স্বাগতিকরা।

পঞ্চম উইকেটে দলকে চাপমুক্ত করেন শন মার্শ ও ট্রাভিস হেড। ব্যাট হাতে উইকেটে আকড়ে থাকেন তারা। পাশাপাশি রানের চাকা সচলও রাখেন মার্শ ও হেড। এতে দলের স্কোর দুইশ ছাড়িয়ে যায়। তাই এই জুটি দিয়েই দিন শেষ করার স্বপ্ন দেখছিলো অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু সেটি হতে দেননি বিহারি ও ইশান্ত। দলীয় ২৫১ রানে উইকেটে সেট হয়ে যাওয়া মার্শ ও হেডকে বিদায় দেন যথাক্রমে বিহারি ও ইশান্ত। মার্শ ৪৫ ও হেড ৫৮ রান করেন।

পঞ্চম উইকেটে ৮৪ রানের জুটি গড়েন মার্শ ও হেড। তাদের বিদায়ের পর আর কোন উইকেটের পতন হতে দেননি অধিনায়ক টিম পাইন ও প্যাট কামিন্স। দিন শেষে অবিচ্ছিন্ন ২৬ রান করেন তারা। পাইন ১৬ ও কামিন্স ১১ রানে অপরাজিত আছেন। ভারতের ইশান্ত-বিহারি ২টি করে, বুমরাহ-উমেশ ১টি করে উইকেট নেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা