kalerkantho

বুধবার । ২১ আগস্ট ২০১৯। ৬ ভাদ্র ১৪২৬। ১৯ জিলহজ ১৪৪০

দ্রুত ২ উইকেট হারাল বাংলাদেশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৮:১৩ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দ্রুত ২ উইকেট হারাল বাংলাদেশ

ফাইল ছবি

সতর্ক শুরুর পর দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে ফেলল বাংলাদেশ। ইনজুরি কাটিয়ে ফেরাটা সুখকর হলো না তামিম ইকবালের জন্য। ব্যক্তিগত ১২ রানে রোস্টন চেইসের বলে ধরা পড়লেন দেবেন্দ্র বিশুর হাতে। ইমরুল কায়েস উইকেটে এসেই বাউন্ডারি হাঁকালেন। তারপর বোল্ড হয়ে গেলেন থমাসের বলে। তার নামের পাশে ৪ রান। অপর ওপেনার লিটন দাসের সঙ্গে বিপদ সামাল দিচ্ছেন মুশফিকুর রহিম। এই মুহূর্তে ১১ ওভারে বাংলাদেশের স্কোর ২ উইকেটে ৫০ রান।

এর আগে আজ রবিবার সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৯৫ রান তোলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শুরু থেকেই টাইগার বোলারদের তোপের মুখে পড়ে সফরকারীরা। দুই পাশ থেকেই স্পিন আক্রমণ দিয়ে বোলিং শুরু করেন অধিনায়ক মাশরাফি। রান বাড়ানোর তাগিদে সাকিব আল হাসানকে তুলে মারতে গিয়ে রুবেল হোসেনের হাতে ধরা পড়েন কাইরন পাওয়েল (১০)।

এর মাঝেই দুইবার জীবন পান ড্যারেন ব্র্যাভো। মুস্তাফিজের বলে সহজ ক্যাচ ছাড়েন আরিফুল হক। এরপর রুবেলের বলে ব্র্যাভোর আরেকটি সহজ ক্যাচ ফস্কে যায় মুশফিকের গ্লাভস থেকে। ক্যারিবীয় টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানকে অবশেষে ১৯ রানে ফেরান অধিনায়ক মাশরাফি। তার বলে চোধ ধাঁধানো ক্যাচ নেন ইনজুরি কাটিয়ে ফেরা তামিম ইকবাল। এই মাশরাফির বলেই বলে ওপেনার শাই হোপ (৪৩) ধরা পড়েন মেহেদী মিরাজের হাতে।

৭৮ রানে তৃতীয় উইকেটর পতনের পর স্যামুয়েলসকে জীবন দেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বিপজ্জনক হেটমায়ার (৬) বিধ্বংসী হয়ে ওঠার আগেই তাকে বোল্ড করে দেন মেহেদী হাসান মিরাজ। রোভম্যান পাওয়েল (১৪) মাশরাফির বলে লিটন দাসের হাতে ক্যাচ দিলে উইন্ডিজের ইনিংস অর্ধেক শেষ হয়। মারলন স্যামুয়েলসের (২৫) উইকেটটিও লিটন দাসের কৃতিত্ব। রুবেল হোসেনের বল উড়িয়ে মেরেছিলেন স্যামুয়েলেস। লং অনের সীমানার ওপর অসাধারণ দক্ষতায় বলটি তালুবন্দি করেন লিটন।

বিপদ সামলে ৭ম উইকেটে ৫১ রানের জুটি গড়েন রোস্টন চেইস এবং কিমো পল। ৩২ রান করা চেইস মুস্তাফিজুর রহমানের প্রথম শিকার হলে ভাঙে এই জুটি। শেষ ওভারে কিমো পলও (৩৭) মিরাজের দারুণ ক্যাচে মুস্তাফিজের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন। এক বল পরে দেবেন্দ্র বিশুকে কট অ্যান্ড বোল্ড করে 'কাটার মাস্টার' তৃতীয় শিকার ধরেন। বোলিং তোপে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৯৫ রানের বেশি করতে পারেনি উইন্ডিজ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা