kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

ইমরুল-সাইফের তাণ্ডবে টাইগারদের দাপুটে স্কোর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ অক্টোবর, ২০১৮ ১৮:১৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ইমরুল-সাইফের তাণ্ডবে টাইগারদের দাপুটে স্কোর

ক্যারিয়ারসেরা ইনিংস উপহার দিলেন ইমরুল কায়েস। ছবি : এএফপি

জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক নিজেদের 'ফেবারিট' বলে যে হুমকিটা দিয়েছিলেন, বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা সেটা যেন সত্যি প্রমাণ করতে উঠেপড়ে লেগেছিলেন। সবার বিপরীতে দাঁড়িয়ে ক্যারিয়ারসেরা ইনিংস উপহার দিলেন ইমরুল কায়েস। তাকে সঙ্গ দিতে গিয়ে সপ্তম উইকেটে ১২৭ রানের জুটি গড়ে ফেললেন সাইফউদ্দিন। এই দুজনের ব্যাটিং দাপটে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়াল ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ২৭১ রান।

আজ রবিবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। সর্বশেষ ওয়ানডেতে ভারতের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করা লিটন দাস আজ শুরু থেকে নড়বড়ে ছিলেন। সিকান্দার রাজার হাতে ক্যাচ দিয়ে বেঁচে যান।

কিন্তু চাতারার এক ওভারে ধস নামে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপে। ৬ষ্ঠ ওভারের প্রথম বলে ক্যাচ তুলে দেন ১৪ বলে ৪ রান করা লিটন। শেষ বলে অভিষিক্ত রাব্বি 'ডাক' মেরে ফিরেন প্যাভিলিয়নে। ১৭ রানে ২ উইকেট হারানোর পর লিটনের ওপেনিং সঙ্গী ইমরুল কায়েস মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে বিপদ সামাল দেওয়ার মিশনে নামেন।

দুজনের জুটিতে ৪৯ রান আসার পর আবারও বিপদ। মাভুতার বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান মুশফিক (১৫)। ইমরুলের সঙ্গী হন মিঠুন। ৬৪ বলে ৫ চার ১ ছক্কায় ক্যারিয়ারের ১৬তম হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন অনেকদিন পর ওপেন করতে নামা ইমরুল। তার সঙ্গী হয়ে হাত খুলে মারতে থাকেন মোহাম্মদ মিঠুন। কিন্তু ১ চার ৩ ছক্কায় ৩৭ রানেই থামতে হয় তাকে। এরপর উইকেটে এসেই জার্ভিসের বলে 'ডাক' মেরে ফিরেন মাহমুদ উল্লাহ।

১৩৭ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর দলকে ভরসা দিতে পারেননি মেহেদী হাসান মিরাজও। ২ রান স্কোরবোর্ডে যোগ হতেই ১ রান করে জার্ভিসের তৃতীয় শিকার হন তিনি। সঙ্গীহীন হয়ে পড়া ইমরুলকে সঙ্গ দিয়ে যান সাইফউদ্দিন। দুজনের জুটি অর্ধশত রান অতিক্রম করে। ৮ নম্বর ব্যাটসম্যানকে নিয়েই ১১৮ বলে ৮ চার এবং ৩ ছক্কায় ক্যারিয়ারের তৃতীয় সেঞ্চুরি তুলে নেন ইমরুল কায়েস।

সেঞ্চুরির পর ইমরুলের ব্যাটে যেন আগুন ঝরতে থাকে। চাতারার করা ৪৬তম ওভারে দুই ছক্কা আর এক চার মারেন। তার দেখাদেখি মারতে শুরু করেন সাইফউদ্দিনও। ১৪০ বলে ১৩ চার এবং ৬ ছক্কায় ১৪৪ রান করা ইমরুল জার্ভিসের বলে মুরের তালুবন্দি হলে ভাঙে ১২৭ রানের সপ্তম উইকেট জুটি। পাশাপাশি ৬৮ বলে ৩ চার ১ ছক্কায় ক্যারিয়ারের প্রথম হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন সাইফউদ্দিন।

ঠিক ৫০ রানেই চাতারার বলে ক্যাচ তুলে বিদায় নেন সাইফউদ্দিন। ইনিংসের তখন শেষ ওভার। মাশরাফি আজ বিগ হিট করার সুযোগ পাননি। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ২৭১ রান তুলে নিজেদের ইনিংস শেষ করে বাংলাদেশ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা