kalerkantho

শনিবার  । ১৯ অক্টোবর ২০১৯। ৩ কাতির্ক ১৪২৬। ১৯ সফর ১৪৪১         

উৎসবের চেয়ে ক্রিকেটটাই আগে : লিটন দাস

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ অক্টোবর, ২০১৮ ১৯:০৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উৎসবের চেয়ে ক্রিকেটটাই আগে : লিটন দাস

গত কয়েকমাস ধরেই তিনি আছেন দুর্দান্ত ফর্মে। এশিয়া কাপে হাঁকিয়েছেন প্রথম ওয়ানডে সেঞ্চুরি। জাতীয় দলে তামিমের বিপরীতে জায়গা পাকা করতে হলে শুধু দরকার ধারাবাহিকতা। সেটাও খুব একটা দূরে নয় লিটন দাসের জন্য। আজ মঙ্গলবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তরুণ এই ওপেনার বললেন, গত কয়েকমাস ধরে প্রায় একটানা ভালো খেলে যাওয়ার রহস্য।

জিম্বাবুয়ে সিরিজ উপলক্ষে অনুশীলন শেষে দলের প্রতিনিধি হিসেবে আসা লিটন বললেন, 'ক্রিকেট সম্পূর্ণ মনস্তাত্ত্বিক খেলা। মানুষ বলে, মন যত পরিষ্কার থাকবে তত ভালো খেলবেন। যেহেতু আগে ভালো খেলিনি। মনে নিজের সামর্থ্য নিয়ে একটু প্রশ্ন থাকেই। আর ভালো করার পর মানসিকভাবে একটু চাপ মুক্ত হওয়া যায়। এই জন্য হয়তো ভালো খেলছি।'

এশিয়া কাপ থেকে ফিরে জাতীয় লিগে দেশের হয়ে দ্রুততম ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে নিজের আগের রেকর্ড নিজেই ভেঙে দিয়েছেন। সেই ধারাবাহিকতায় জাতীয় দলে তার ওপর এখন বড় দায়িত্ব। ইনজুরি আক্রান্ত তামিম ইকবাল এতদিন যে দায়িত্ব পালন করে এসেছেন, সেই দায়িত্ব আসন্ন জিম্বাবুয়ে সিরিজে লিটনকে পালন করতে হবে। নিজেকে রান করতে হবে পাশাপাশি সঙ্গী হিসেবে যেই আসুক না কেন, তাকে এগিয়ে নিতে হবে। কতটা চাপ অনুভব করছেন লিটন?

ড্যাশিং এই ওপেনার বললেন, 'আমি তো দলে নিয়মিত ছিলাম না। তামিম ভাই নিয়মিত। তার সঙ্গে সবাই যাওয়া-আসার মধ্যে ছিল। আমার নিয়মিত হওয়ার সুযোগ ছিল না। এবার আমার যে সঙ্গী হবে, সেও নতুন হবে। আমিও নতুন। হ্যাঁ, আত্মবিশ্বাসের জায়গা থেকে একটু ভালো জায়গায় আছি হয়তো। আগেও বলেছি, প্রতিটা ম্যাচ নির্ভর করে সেই দিন কেমন শুরু করছি সেটির ওপরে। হতে পারে পরের ম্যাচে শূন্য রানে আউট হতে পারি। আকাশছোঁয়া আত্মবিশ্বাসী হয়ে লাভ নেই।' 

যে মুহূর্তে জাতীয় দলের অনুশীলন ক্যাম্প চলছে, সেই মুহূর্তে হিন্দু ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজাও চলছে। আজ মহাসপ্তমীর দিনে লিটন কি মিস করছেন না পূজার আনন্দ? জবাবটা পুরো পেশাদার ক্রিকেটারের মতোই দিলেন লিটন, 'পূজার মাঝে অনুশীলনে খুব ভালো লাগছে। এক্সিলেন্ট! আসলে পেশাদার ক্রিকেটারের কাছে ক্রিকেটটাই সবার আগে। ব্যক্তিগত, পারিবারিক, সামাজিক কিংবা উৎসবের চেয়ে তাকে দলের দলের প্রয়োজনটাই আগে দেখতে হয়।'

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা