kalerkantho

পাকিস্তানকে হারিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০১:১৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পাকিস্তানকে হারিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারত

পাকিস্তানের বিপক্ষে সহজ জয় পেয়েছে ভারত। এশিয়া কাপের সুপার ফোরে এই দুই ওপেনার রোহিত-ধাওয়ানের ব্যাটে উড়ে গেল পাকিস্তান। দুইজনের জোড়া সেঞ্চুরিতে ৯ উইকেটের বড় জয় নিয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠে গেল ভারত।
 
দুবাইয়ে পাকিস্তানের দেওয়া ২৩৮ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে মাত্র এক উইকেট হারিয়ে ৬৩ বল হাতে রেখে লক্ষ্যে পৌঁছে যান রোহিতরা।
 
রোহিতকে আউট করতে পারলেও ধাওয়ানকে পরাস্ত করতে পারেননি পাকিস্তানি বোলাররা। ১১৪ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন বাহাতি ওপেনার ধাওয়ান। আউট হওয়ার রোহিতের ব্যাট থেকে আসে ১১০ রানের দৃষ্টিনন্দন ইনিংস। আম্বাতি রাইডু অপরাজিত থাকেন ১২ রানে।
 
মোহাম্মদ আমির-হসান আলীদের নিয়ে গড়া পাকিস্তানি বোলিং লাইনআপকে রীতিমত কচুকাটা করেছেন রোহিত ধাওয়ান। এ দুজনের কাছেই মূলত হেরে গেছে আগের ম্যাচে দুর্দান্ত জয় পাওয়া পাকিস্তান। প্রথম উইকেটের দেখা পেতে পেতে ম্যাচ থেকেই ছিটকে যান শোয়েব মালিকরা। ২১০ রানের মাথায় ভাঙ্গে ভারতের ওপেনিং জুটি।
 
সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয়ের নায়ক শোয়েব মালিক ও পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের শতাধিক (১০৭) করা জুটিতে একসময় মনে হয়েছিল ২৭০ প্লাস রান কোনো বিষয়ই না পাকিস্তানের জন্য। কিন্তু দুজনের পতনের সঙ্গে সঙ্গে থমকে যায় পাকিস্তানের ইনিংসও।
 
দুবাইয়ে টসে জিতে আগে ব্যাট করে পাকিস্তান ২৩৮ রানের টার্গেট দেয় ভারতকে। ৫০ ওভার ব্যাট করে সাত উইকেট হারিয়ে ২৩৭ রান করে পাকিস্তান। সর্বোচ্চ ৭৮ রান আসে শোয়েব মালিকের ব্যাট থেকে। এ ছাড়া সরফরাজ ৪৪, ফাখহার জামান ৩১ ও  আসিফ আলী ৩০ রান করেন। একমাত্র বাবর আজম (৯) ও হাসান আলী (২) ছাড়া পাকিস্তানের সব ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছান।
 
ভারতের হয়ে যসপ্রীত বুমরাহ, যুগেন্দ্র চাহাল ও কুলদীপ যাদব দুই উইকেট করে নেন। একমাত্র বাবর আজম রান আউটের শিকার হয়ে ফিরে যান সাজঘরে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা