kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ মে ২০১৯। ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৫ রমজান ১৪৪০

বিশ্বসাহিত্য

২৯ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



 

 

গাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেস

 

অবশেষে ‘নিঃসঙ্গতার এক শ বছর’-এর চিত্ররূপ

কলম্বিয়ার নোবেলজয়ী লেখক গাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেসের অনেক গল্প-উপন্যাসই চলচ্চিত্রে রূপ দেওয়া হয়েছে। সেগুলোও রচনার মতোই জনপ্রিয়তা পেয়েছে। কিন্তু তাঁর ভুবনবিখ্যাত উপন্যাস ‘ওয়ান হানড্রেড ইয়ারস অব সলিটিউড’ বা ‘নিঃসঙ্গতার এক শ বছর’-এর চলচ্চিত্র রূপদানের বিষয়ে খোদ মার্কেসেরই সংশয় ছিল। তিনি মনে করতেন, সময়ের সীমাবদ্ধতার কারণেই প্রচলিত চলচ্চিত্র কাঠামোতে একে সহজে ধরা যাবে না। তাঁর অবশ্য একটা আইডিয়া এ রকম ছিল যে পুরো উপন্যাস চলচ্চিত্রাকারে একবারে শুট করে নিয়ে তারপর এক শ বছর ধরে একেকটি এপিসোড হিসেবে দর্শকদের সামনে আনতে হবে! এটি স্প্যানিশ ভাষায় ছাড়া অন্য কোনো ভাষায় করা হলেও তা পূর্ণতা পাবে না বলে মনে করতেন তিনি। সম্প্রতি মার্কেসের দুই চলচ্চিত্রকার ছেলে রদ্রিগো গার্সিয়া এবং গনজালো গার্সিয়া মার্সা অবশেষে মাকোন্দোর বুয়েন্দিয়া পরিবারের কাহিনি চলচ্চিত্রে রূপ পেতে চলেছে। আর চলচ্চিত্রে রূপদানের স্বত্ব পেয়েছে বর্তমান সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় বিনোদনমাধ্যম নেটফ্লিক্স। তবে ফিচার ফিল্ম হিসেবে নয়, নেটফ্লিক্সে দর্শকরা দেখতে পাবেন সিরিজ আকারে। ছবিটি হবে স্প্যানিশ ভাষায়, দেওয়া থাকবে সাবটাইটেলও। এর শুটিং শুরু হবে দ্রুতই। যদিও কুশীলব বা নির্দেশক এখনো ঠিক হয়নি।

 

 মেডেলিন মিলার

উইমেন্স প্রাইজের দীর্ঘ তালিকা

যুক্তরাজ্যের উইমেন্স প্রাইজ ফর ফিকশনের জন্য মনোনীত বইয়ে দীর্ঘ তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে সম্প্রতি। ১৬টি বইয়ের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে এরই মধ্যে এ পুরস্কারজয়ী লেখক ও বুকারজয়ী লেখকের বইসহ সাতজন নতুন লেখকের বই।  ৩০ হাজার পাউন্ড অর্থমূল্যের এ পুরস্কারের জন্য মনোনীত দীর্ঘ তালিকার বইগুলো হচ্ছে—প্যাট বার্কারের ‘দ্য সাইলেন্স অব দ্য গার্লস’, ইভান ব্যাটেল-ফেল্টনের ‘রিমেম্বারড’, ওইনকান ব্রেইথওয়েটের ‘মাই সিস্টার, দ্য সিরিয়াল কিলার’, মেলিসা ব্রোডারের ‘দ্য পাইসিজ’, অ্যানা বার্নসের ‘মিল্কম্যান’, অকওয়েকে এমেজির ‘ফ্রেশওয়াটার’, ডায়ানা ইভানসের ‘অরডিনারি পিপল’, কেলিহ গ্রিনবার্গ-জেফকটের ‘সোয়ান সং’, টায়ারি জোনসের ‘অ্যান আমেরিকান ম্যারিজ’, লিলিয়ান লির ‘নাম্বার ওয়ান চায়নিজ রেস্টুরেন্ট’, সোফি ভ্যান লিউইনের ‘বোটলড গুডস’, ভ্যালেরিয়া লুইসেলির ‘লস্ট চিলড্রেন আর্কাইভ’, বার্নিস এল ম্যাকফ্যাডেনের ‘প্যারিস সংস ফর দ্য বাটারফ্লাইস’, মেডেলিন মিলারের ‘সিয়ারসি’, সারাহ মসের ‘ঘোস্ট ওয়াল’ এবং স্যালি রুনির ‘নরমাল পিপল’। আগামী ২৯ এপ্রিল সংক্ষিপ্ত তালিকা এবং ৫ জুন বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে।

 ডাব্লিউএস মারউইন

পুলিত্জারজয়ী কবি মারউইনের জীবনাবসান

পুলিত্জার পুরস্কারজয়ী মার্কিন কবি উইলিয়াম স্টানলি মারউইন আর নেই। হাওয়াইয়ের মাউয়ি দ্বীপে নিজ বাড়িতে গত ১৫ মার্চ মারা যান তিনি। তাঁর বয়স হয়েছিল ৯১ বছর।  দীর্ঘ ক্যারিয়ারে কবিতায় নতুন নতুন শৈলী ব্যবহারে মাস্টার বলে খ্যাত মারউইন ছিলেন প্রকৃতির পুজারি। যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক পোয়েট লরিয়েট মারউইনের ২০টিরও বেশি কাব্যগ্রন্থ রয়েছে। তাঁর প্রথম দিককার রচনাগুলো পুরান থেকে শুরু করে পরিবেশবাদী আন্দোলন এবং ভিয়েতনাম যুদ্ধের মতো বিষয় দ্বারা দারুণভাবে অনুপ্রাণিত। মারউইন একাধিকবার পুলিত্জার পুরস্কার পেয়েছেন। ১৯৭১ সালে ‘দ্য ক্যারিয়ার অফ ল্যাডারস’ গ্রন্থের জন্য তিনি পুলিত্জার পান। কিন্তু ভিয়েতনাম যুদ্ধে মার্কিন ভূমিকার প্রতিবাদে তিনি ওই পুরস্কার প্রত্যাখ্যান করেন। প্রত্যাখ্যান করেন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ আর্টস অ্যান্ড লেটারসের সদস্যপদও। বর্তমানে ওই প্রতিষ্ঠানটি অ্যামেরিকান অ্যাকাডেমি অফ আর্টস অ্যান্ড লেটারস নামে অভিহিত। অবশ্য পাঁচ বছর পর ১৯৭৭ সালে তিনি তাঁর মত পরিবর্তন করেন। তাঁর অন্যান্য পুরস্কারের মধ্যে ন্যাশনাল বুক অ্যাওয়ার্ড ফর মাইগ্রেশন (২০০৫), দ্য শ্যাডৌ অফ সিরিয়াস গ্রন্থের জন্য পুলিত্জার (২০০৯), সাহিত্যে  আজীবনের অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে টানিং প্রাইজ, বলিঙ্গেন প্রাইজ ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। তিনি ২০১০ সালে এক বছরের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের পোয়েট লরিয়েট নির্বাচিত হন।

►রিয়াজ মিলটন

 

মন্তব্য