kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বসুন্ধরার সেলাই মেশিন পেলেন বিধবা মাজেদা

'অহন পোলাপাইনডিরে লইয়া চলন যাইবো, কষ্টের দিন শেষ অইবো'

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি   

২০ আগস্ট, ২০২২ ১২:০২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



'অহন পোলাপাইনডিরে লইয়া চলন যাইবো, কষ্টের দিন শেষ অইবো'

বসুন্ধরার সেলাই মেশিন পেলেন বিধবা মাজেদা বেগম

নেই কোনো জমিজমা। নেই সম্বল।  স্বামীর ক্ষুদ্র ব্যবসা ও নিজ হাতে সেলাই কাজ ছাড়াও পরের বাড়িতে কাজ করে দুই ছেলে ও দুই মেয়ে নিয়ে সংসার চলে আসছিল মাজেদার। এ অবস্থায় চার বছর আগে দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হন তাঁর স্বামী।

বিজ্ঞাপন

এর পর থেকেই অন্ধকার নেমে আসে মাজেদার সংসারে। দ্বারে দ্বারে হাত পেতেও আলোর মুখ দেখতে পারেননি। অবশেষে দেশের শীর্ষ শিল্পপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপ এগিয়ে এসেছে বিধবা মাজেদা বেগমের বিপদে। গতকাল শুক্রবার বসুন্ধরার পক্ষ থেকে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার কালের কণ্ঠ শুভসংঘের সদস্যরা এই সেলাই মেশিন হস্তান্তর করেছেন তাঁর কাছে।

বিধবা মাজেদা বেগমের বাড়ি ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের রাধাবল্লবপুর গ্রামে। তাঁর মৃত স্বামীর নাম হেলাল উদ্দিন। দুই ছেলে ও দুই মেয়ে নিয়ে তাঁর সংসার।

সেলাই মেশিন পেয়ে মাজেদা জানান, দুই ছেলে ও দুই মেয়েকে নিয়ে সংসার তাঁর ভালোই চলছিল। সহজ-সরল স্বামী নিজে পরিশ্রম করে অল্প পুঁজি নিয়ে পান-সুপারির ব্যবসা করতেন স্থানীয় বাজারে। প্রায় চার বছর আগে রাতে বাড়ি ফেরার পথে মাদকাসক্তরা কুপিয়ে হত্যা করে তাঁর স্বামী হেলাল উদ্দিনকে। সংসারের আয়-উপার্জনক্ষম মানুষটিকে হারিয়ে পথে বসেন মাজেদা। চোখেমুখে অন্ধকার দেখেন। বিত্তবানদের দ্বারস্থ হলেও কোনো ফায়দা হয়নি। এর মধ্যে তাঁর এই অসহায়ত্বের কথা পৌঁছে যায় কালের কণ্ঠ শুভসংঘের সদস্যদের কাছে। তাঁরাই তাকে আশ্বস্ত করেন একটি সেলাই মেশিন দেওয়ার । গতকাল শনিবার তাঁর হাতে তুলে দেওয়া হয় সেলাই মেশিন। এখন সেলাই মেশিন পেয়ে তিনি বেজায় খুশি।  

কৃতজ্ঞ কণ্ঠে মাজেদা বলেন, ‘এই অবলম্বনটুকু পাইয়া আমি অনেক খুশি। অহন পোলাপাইনডিরে লইয়া চলন যাইবো। এইডা দিয়াই সংসারের খরচ মিটাইয়া পোলাপাইনের পড়ালেহার খরচ মেটান যাইবো। কষ্টের দিন শেষ অইবো। ’

তাকে এই দুর্বিষহ জীবন থেকে মুক্তির পথ বের করে দেওয়ার জন্য তিনি বসুন্ধরা গ্রুপকে ধন্যবাদ জানান।

সেলাই মেশিনটি হস্তান্তর করার সময় ওই বাড়িতে উপস্থিত ছিলেন কালের কণ্ঠ শুভসংঘের নান্দাইল উপজেলার সভাপতি আহসান উদ্দিন খান সোহাগ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শুভ দত্ত, সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বিজয়, সহ-সাংগঠনিক আফিজ ইকবাল ও সানোয়ার হোসেন জয়, ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার সভাপতি আহসানুল হক দিদার, সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহম্মেদ শাকিল, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোস্তফা আমীর ফয়সাল। এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের মধ্যে মো. সামছুদ্দিন মেম্বার, আবুল খায়ের, আবুল কালাম, নুরুদ্দিন, সুলতান, খাইরুল ইসলাম রতন, বারেক, গফুর, এমদাদ এরশাদ, আতিকুল মেহেদি হাসান, জাকির মোল্লা, সাহেদ আলীসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।



সাতদিনের সেরা