kalerkantho

বুধবার । ২৯ জুন ২০২২ । ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৮ জিলকদ ১৪৪৩

অসহায় মানুষের মাঝে পোশাক বিতরণ

আবদুল হাকিম রানা   

২১ মে, ২০২২ ১০:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অসহায় মানুষের মাঝে পোশাক বিতরণ

বয়োবৃদ্ধ হকার আবদুল হাকিম। পত্রিকা বিক্রি করতে করতে পার করে দিয়েছেন জীবনের অর্ধেকটা। দরিদ্রতা তাঁর ললাটে লেখা সেই জন্মলগ্ন থেকেই। অবস্থার হয়নি পরিবর্তন।

বিজ্ঞাপন

এক কাপড়ে পার করে দিয়েছেন ঈদ। কিন্তু নতুন পোশাক কেনার সামর্থ্যটুকু হয়নি তাঁর। সম্প্রতি পটিয়ায় শুভসংঘের উদ্যোগে অসহায় মানুষ ও পত্রিকা হকারদের মধ্যে উপহার হিসেবে নতুন পোশাক বিতরণ করা হয়েছে। এ উপলক্ষে পটিয়া প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণে পটিয়া উপজেলা শুভসংঘের উপদেষ্টা পটিয়া আদালতের পিপি বদিউল আলমের সভাপতিত্বে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সমিতি, ঢাকার সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন হিরো।

স্বাগত বক্তব্য দেন কালের কণ্ঠের পটিয়া প্রতিনিধি ও পটিয়া প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবদুল হাকিম রানা এবং শুভসংঘের উপজেলা সদস্যসচিব এস এম জুয়েল। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রবীণ রাজনীতিবিদ তাজুর মুল্লুক, কুসুমপুরা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান শওকত আকবর ও কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন আজাদ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাহাদাত হোসেন হিরো বলেন, পত্রিকা হকাররা রুট লেভেলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে খবরের কাগজ পাঠকদের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়ে থাকেন। কিন্তু তাঁরা অর্থনৈতিক দীনতার কারণে পরিবার-পরিজন নিয়ে স্বাচ্ছন্দ্যে থাকতে পারেন না। তাই বিত্তবানদের উচিত তাঁদের পাশে দাঁড়িয়ে নাগরিক দায়িত্ব পালন করা।

এ সময় অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে পত্রিকা হকার আসহাব উদ্দিন বলেন, ‘আমরা ঝড়বৃষ্টিতে ভিজে, রোদে পুড়ে পুরো বছর পত্রিকা বিলি করি, কিন্তু ঈদ বা পূজা-পার্বণে কেউ আমাদের পাশে দাঁড়ায় না। এ কারণে করোনার পর পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করতে বাধ্য হচ্ছি। ’ প্রবীণ হকার আবদুল হাকিম বলেন, ‘কালের কণ্ঠ শুভসংঘের বন্ধুরা আমাদের ঈদ উপহার দিয়ে কৃতজ্ঞতার পাশে আবদ্ধ করেছেন। আমরা আজ খুবই খুশি। ’ এ সময় শুভসংঘের বন্ধু শওকত আকবর উপস্থিত অসহায় মানুষকে তাঁর ব্যক্তিগত তহবিল থেকে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করেন।



সাতদিনের সেরা