kalerkantho

সোমবার । ৯ কার্তিক ১৪২৮। ২৫ অক্টোবর ২০২১। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

লড়াকু নার্গিসকে নগদ অর্থ-শিক্ষা উপকরণ দিল শুভসংঘ

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ২০:২৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



লড়াকু নার্গিসকে নগদ অর্থ-শিক্ষা উপকরণ দিল শুভসংঘ

বাল্যবিয়ের হাত থেকে বেঁচে যাওয়া চরের লড়াকু নার্গিস নাহারের লেখাপড়ার খরচ জোগাতে শুভসংঘের পক্ষ থেকে নগদ অর্থ ও শিক্ষা উপকরণ প্রদান করা হয়েছে। আজ সোমবার সদর উপজেলার সারডোব আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে কুড়িগ্রাম শুভসংঘের পক্ষ থেকে সহায়ক বই, কলম, খাতা, ক্যালকুলেটর, জ্যাামিতি বক্সসহ নগদ অর্থ প্রদান করা হয়।

এ সময় কালের কণ্ঠের কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধি আব্দুল খালেক ফারুক, জেলা শুভসংঘের সদস্য শফিকুল ইসলাম, কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ শুভসংঘের প্রচার সম্পাদক সাজেদুল করিম সুজন, সমাজকল্যাণ সম্পাদক সাইমুল ইসলাম সাজু, সারডোব আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফজলার রহমান, সহকারী শিক্ষক শিক্ষক আব্দুল মজিদ চৌধুরী, আবু সুফিয়ান, স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি একরামুল হক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন 'সারডোবে আলো’র সভাপতি এনামুল হক।

তিন দফা বিয়ের প্রস্তাব আসলেও অনঢ় নার্গিসের কারণে বাবা-মা তার বিয়ে দিতে পারেননি। অথচ তার নবম শ্রেণির বাকি ৮ ছাত্রীর বিয়ে হয়েছে গত দেড় বছরে। দশম শ্রেণির ৪ ছাত্রীর তিনজনেরও বিয়ে হয়েছে এ সময়। এই চিত্র কুড়িগ্রাম সদরের সারডোব উচ্চ বিদ্যালয়ের।

গত ১৩ সেপ্টেম্বর দৈনিক কালের কণ্ঠে 'রইল বাকি এক' শীর্ষক সংবাদটি প্রচারিত হয়। এরপর নার্গিসকে নিয়ে ১৯ সেপ্টেম্বর কালের কণ্ঠের প্রথম পাতায় 'চরের লড়াকু নার্গিস' শীর্ষক খবরটি প্রকাশ হলে ব্যাপক সাড়া পড়ে। কালের কণ্ঠ সম্পাদক ও বরেণ্য কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলনের নির্দেশে শুভসংঘের পরিচালক জাকারিয়া জামান নার্গিসের লেখাপড়া চালিয়ে নিতে প্রতিমাসে বৃত্তি ঘোষণা করেন। তারই অংশ হিসেবে সোমবার নগদ অর্থ ও শিক্ষা উপকরণ প্রদান করা হয়।

এ সময় নার্গিস নাহার বলেন, কালের কণ্ঠের পক্ষ থেকে শিক্ষা উপকরণ পেয়ে আমি অনেক খুশি। এতদিন আমার প্রয়োজনীয় বই ছিল না। এখন সব বই পেয়ে আমার লেখাপড়ার সমস্যা দূর হলো। আমার লেখাপড়ায় আরো আগ্রহ সৃষ্টি হলো।

নার্গিসের বাবা আব্দুল খালেক বলেন, 'অভাবের কারণে বইসহ অনেক উপকরণ সময়মতো কিনে দিতে পারিনি। এই বই আর উপকরণ পেয়ে নার্গিসের লেখাপড়ায় আরো উৎসাহ সৃষ্টি হলো। তার স্বপ্ন পূরণের জন্য শিক্ষকসহ সবার সহযোগিতা দরকার।'

প্রধান শিক্ষক ফজলার রহমান জানান, নার্গিসকে দেখে অন্যরাও অনুপ্রেরণা পাবে। এভাবে একদিন বাল্যবিয়ের হার কমে যাবে। 



সাতদিনের সেরা