kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৩ আশ্বিন ১৪২৮। ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১। ২০ সফর ১৪৪৩

পাঁচবিবিতে ৪০০ অতিদরিদ্র পরিবার পেল কালের কণ্ঠ শুভসংঘের ত্রাণ

সুমন চৌধুরী ও নাজমুল হুদা, জয়পুরহাট থেকে   

২ আগস্ট, ২০২১ ১৮:৫০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পাঁচবিবিতে ৪০০ অতিদরিদ্র পরিবার পেল কালের কণ্ঠ শুভসংঘের ত্রাণ

জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি উপজেলায় ৪০০ অসহায় ও অতিদরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে কালের কণ্ঠ শুভসংঘ। এছাড়া সকলের মাঝে মাস্ক বিতরণ ও করোনা সুরক্ষায় সচেতনতামূলক পরামর্শ দেওয়া হয়। আজ সোমবার পাঁচবিবি স্টেডিয়ামে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বসুন্ধরা গ্রুপের সহায়তায় এই খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

আজিদা বেগম। ত্রিশ বছর ধরে নিঃসঙ্গ জীবন কাটাচ্ছেন। এক দুর্ঘটনায় স্বামী ফিরোজ মাঝি মারা যান। এরপর মেয়েকে বিয়ে দিলে তিনিও মারা যান। এখন তাকে দেখার কেউ নেই। বসুন্ধরা গ্রুপের খাদ্যসামগ্রী তুলে দেওয়া হয় তার হাতে। সহায়তা পেয়ে আজিদা বলেন, ‘খুব দুঃখ হামার। এই খাবারে হামার মেলা দিন চইল্যা যাবে। হামার অনেক উপকার করলু। তোমাকের নেকির পাল্লা ভারি হোক। জান্নাত দেক।’ 

রূপ কুমার নামের এক উপকারভোগী বলেন, ‘করোনায় হামি কামাই করবা পারি না। মা, দুই বাচ্চা আর স্ত্রী লইয়া কষ্টত আছি। এই চাল-ডাইলে হামরা ৭ দিন খাবার পারমু। তোমাকের জন্য ভোগবানের কাছেত দোয়া করি। ভালো করবেন তোমাকের।’ 

খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমে উপস্থিত হয়ে পাঁচবিবি উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল শহিদ মুন্না বলেন, ‘করোনার শুরু থেকেই বসুন্ধরা গ্রুপ মানুষের জন্য অনেক কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে সারা দেশের ২ লাখ অসহায় পরিবারের মাঝে খাবার সামগ্রী দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। সরকারের সঙ্গে বসুন্ধরা গ্রুপের মতো বড় বড় শিল্পগোষ্ঠীর উচিত সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানো। তারা নির্দিষ্ট এলাকাভিত্তিক কিছু সামাজিক কাজ করে। কিন্তু বসুন্ধরা গ্রুপ দেশ সব জেলায় খাদ্যসামগ্রী বিতরণের কর্মসূচি হাতে নিয়েছে যা প্রশংসনীয়। এর জন্য আমি তাদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। আপনাদের যে খাবার দিয়েছে এই খাবারে আপনারা ১০ দিন খেতে পারবেন। এই সময় অন্তত কেউ অযথা ঘর থেকে বের হবেন না। সবাই মাস্ক পরবেন।’ 

খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমে আরো উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বরমান হোসেন, পৌরসভার মেয়র হাবিবুর রহমান হাবিব, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু বক্কর সিদ্দিক মন্ডল, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র দেব, কালের কণ্ঠ শুভসংঘের পরিচালক জাকারিয়া জামান, কালের কণ্ঠ জয়পুরহাট জেলার প্রতিনিধি আলমগীর চৌধুরী, শুভসংঘের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শরীফ মাহ্দী আশরাফ জীবন, পাঁচবিবি উপজেলার উপদেষ্টা আব্দুল হালিম সাবু, আজাদ আলী ও জিহাদ মন্ডল, সভাপতি তাইজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আরাফাত মন্ডলসহ এপিএম জাহিদুর রহমান, জীবন কৃষ্ণ সরকার, জয়নাল আবেদিন, তৌফিক হাসান, আরাফাত হোসেন, উল্লাস কুমার, জাহিদ হাসান, রুহুল আমিন, ফাতেমা আক্তার, আক্তার হোসেন, আল কারিয়া চৌধুরী, হিমেল হোসেন, রাব্বি হোসেন, রুমাইয়া আক্তার রিয়া, সাদিয়া আক্তার, রিয়া আক্তার, গোবিন্দ সরকার, মাহফুজুল হোসেন, হাসনাইন হোসেন, রাফিউল হোসেন, গৌর মহান্ত ও উত্তরা ইউনিভার্সিটির সাবেক সভাপতি আলমগীর হোসেন রনি।



সাতদিনের সেরা