kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ আশ্বিন ১৪২৮। ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৩ সফর ১৪৪৩

দুখনির পরিবারের দুঃখ দূরে পাশে দাঁড়ালো কালের কণ্ঠ শুভসংঘ

রফিকুল আলম ও নাজমুল হুদা, বগুড়া থেকে   

২৯ জুলাই, ২০২১ ১১:৫১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দুখনির পরিবারের দুঃখ দূরে পাশে দাঁড়ালো কালের কণ্ঠ শুভসংঘ

দুখনি খাতুন। দুঃখই যেন তার জীবন। দুঃখ পেলে যে চোখ দিয়ে জল গড়িয়ে পড়ে তার সে চোখগুলোই দেখে না পৃথিবীর আলো। ছোটবেলায় ঝাপসা দেখলেও ধীরে ধীরে চোখের জ্যোতি হারিয়ে ফেলেন তিনি। দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী দেখে দু'বছর আগে স্বামীও চলে যায় তাকে রেখে। তবে এই দুঃখ শুধু যে দুখনির তা নয়। দুঃখ তার পরিবারের সবার।

মা-বাবা, ভাই-বোন নিয়ে তাদের ছয় জনের সংসার। বসবাস বগুড়ার ধুনট উপজেলার আরকাটিয়া গ্রামে। তাদের সবাই দৃষ্টি প্রতিবন্ধী। জন্ম থেকেই তারা স্বচ্ছ প্রকৃতির ঘোলাটে রূপ দেখতেন। এখন অন্ধকারই তাদের জীবন। মানুষের থেকে চেয়ে নেওয়া সাহায্য আর ভাতা দিয়েই সংসারের চুলা জ্বলে। দুখনি খাতুনদের দৃষ্টি পৃথিবীর আলো না দেখলেও কালের কণ্ঠ শুভসংঘের সদস্যদের দৃষ্টি তাদের দেখেছে। তাদের পরিবারের প্রত্যেক সদস্যের হাতে তুলে দিয়েছে শুভসংঘের খাদ্যসামগ্রী।

ত্রাণ পেয়ে দুখনি বলেন, "আল্লায় বসুন্ধরার মালিককে শান্তিতে রাখুক। কামাই রোজগার বাড়িয়া দিক। তার জন্য দোয়া করিচ্চি। তোমাকের জন্যও দোয়া করিচ্চি। হামাকের সবাইরে তোমরা সাহায্য দিলা। তোমাকের আল্লা ভালো করিবে।" দুখনির বোন আজিনা খাতুনও দোয়া করেছেন। তিনি বলেন, "তোমরা হামাকেরে দেকিচ্চু। তোমাকেরে আল্লায় দেকিবে। তোমাকেরে দুধেভাতে রাখিবে।"

আজ বৃহস্পতিবার বগুড়া জেলার ধুনট উপজেলায় দুখনির পরিবারের মতো ৩০০ অসহায় ও দুস্থ পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দিয়েছে কালের কন্ঠ শুভসংঘ। এছাড়া সকলের মাঝে মাস্ক বিতরণ ও করোনা সুরক্ষায় সচেতনতামূলক কর্মসূচি পালন করা হয়।

উপজেলার ধুনট এন ইউ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বসুন্ধরা গ্রুপের সহায়তায় এই ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে উপস্থিত হয়ে ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সঞ্জয় কুমার মহন্ত বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ সারাদেশে ত্রাণসামগ্রী বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছে। এরই অংশ হিসেবে বগুড়া জেলার সবগুলো উপজেলায় কালের কণ্ঠ শুভসংঘের মাধ্যমে অসহায় ও দুস্থ মানুষকে খাদ্যসামগ্রী দিচ্ছে। আজকে আমাদের উপজেলায়ও তারা ত্রাণ দিল। তাই আমি বসুন্ধরা গ্রুপকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। আমরা আশা করব শুভসংঘের মতো দেশের সকল সংগঠন যেন এভাবে মানুষের পাশে দাঁড়ায়।

ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে আরো উপস্থিত ছিলেন পৌরসভার মেয়র এজিএম বাদশাহ, ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কৃপা সিন্ধু বালা, কালের কণ্ঠ শুভসংঘের পরিচালক জাকারিয়া জামান, কালের কন্ঠ'র ব্যুরো প্রধান লিমন বাসার, শুভসংঘ বগুড়া জেলার উপদেষ্টা মোস্তফা মাহমুদ শাওন, ধুনট এন ইউ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মশিউর রহমান, শুভসংঘের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শরীফ মাহ্দী আশরাফ জীবন, বগুড়া জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শিশির মোস্তাফিজ, সদস্য মশিউর রহমান জুয়েল, ধুনট উপজেলার সভাপতি রেজাউল ইকবাল মিন্টু, সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেনসহ আমিনুল ইসলাম, বাবুল ইসলাম, তরিকুল ইসলাম, জাহিদুল ইসলাম, আবদুল হামিদ, মিজানুর রহমান ও উত্তরা ইউনিভার্সিটির সাবেক সভাপতি আলমগীর হোসেন রনি।



সাতদিনের সেরা