kalerkantho

বুধবার । ৯ আষাঢ় ১৪২৮। ২৩ জুন ২০২১। ১১ জিলকদ ১৪৪২

ভাঙ্গুড়ায় ঈদ আনন্দে দুস্থদের পাশে শুভসংঘ

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি   

১০ মে, ২০২১ ১৫:৪৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভাঙ্গুড়ায় ঈদ আনন্দে দুস্থদের পাশে শুভসংঘ

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া ৩৭টি পরিবারের মধ্যে ঈদ উপলক্ষে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছেন পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলা শাখা শুভসংঘের বন্ধুরা। ভাঙ্গুড়া পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম হাসনাইন রাসেল উপস্থিত থেকে আজ সোমবার এই খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন।

এ সময় ভাঙ্গুড়া সচেতন সাহিত্য সাংস্কৃতিক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল বাবুল ও ঢাকার চিলেকোঠা ফিল্মের সহকারী পরিচালক কল্লোল কবির উপস্থিত ছিলেন। খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে ছিল চিনিগুঁড়া চাল, চিনি, সেমাই ও আটা।

করোনা সংক্রমণ থেকে সুরক্ষিত থাকতে প্রথম ধাপে ভাঙ্গুড়া সরকারি মডেল হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পৌর শহরের ১৫ জনকে এই খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়। পরে শুভসংঘের সদস্যরা উপজেলার পারভাঙ্গুড়া ইউনিয়নের পাথরঘাটা গ্রামে ১২ জন এবং মণ্ডতোষ ইউনিয়নের দিয়ারপাড়া গ্রামে ১০ জন দুস্থ ও অসহায় ব্যক্তির বাড়িতে গিয়ে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেন।

শুভসংঘের সদস্য শাহিবুল ইসলাম, তন্ময়, আহমেদ মোর্শেদ নিজাম, আজমল হোসেন, আসাদুল ইসলাম, মামুন হোসেন, রাকিব উদ্দিন এসব খাদ্যসামগ্রীর প্যাকেট বিতরণ করেন।

একটি বিদ্যালয়ের বেতনহীন কর্মচারী বাদশা মিয়া বলেন, ২৫ বছর ধরে অস্থায়ীভাবে একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পিয়নের চাকরি করি। বিদ্যালয় থেকে সামান্য বেতন পাই। তা দিয়ে সংসার চলে না। তাই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কাছে খাতা, কলম ও অন্যান্য সামগ্রী বিক্রি করে সামান্য আয় করতাম। কিন্তু করোনার কারণে স্কুল ছুটি থাকায় সেটাও বন্ধ হয়ে গেছে। এখন মানবেতর জীবন যাপন করছি। এই দুঃসময়ে শুভসংঘের দেওয়া খাদ্যসামগ্রী আমার পরিবারের মুখে হাসি ফোটাবে। 

ভাঙ্গুড়া পৌরসভার মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল বলেন, সমাজ ও মানুষের কল্যাণে শুভসংঘের সদস্যরা প্রতিনিয়ত ছুটে বেড়ায়। শুভসংঘের সামাজিক ও মানবিক এই বিষয়টি আমার কাছে অত্যন্ত ভালো লাগে। তাই এমন ভালো কাজে অনুপ্রেরণা দিতে শুভসংঘের পাশে আছি।



সাতদিনের সেরা