kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

বাইরে দৃষ্টিনন্দন ভেতরে দুর্ভোগ

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

৪ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাইরে দৃষ্টিনন্দন ভেতরে দুর্ভোগ

হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার নতুনহাটি গ্রাম বাইরে থেকে দেখলে চোখ জুড়িয়ে যায়। ভেতরে রাস্তাঘাট একেবারেই কাঁচা। ছবি : কালের কণ্ঠ

বর্ষা এলে বদলে যায় প্রকৃতি। হাওরাঞ্চলের প্রকৃতি ধারণ করে অন্য রূপ। এ সময় বদলে যায় হাওরাঞ্চলের গ্রামগুলোর দৃশ্যপট। বেশির ভাগ গ্রামই প্রকৃতিপ্রেমীদের দৃষ্টি কাড়ে।

এ রকমই এক গ্রাম হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ের নতুন হাটি। কিন্তু বর্ষাকালে দুর্ভোগকে সঙ্গে নিয়ে চলে এই গ্রামের বাসিন্দাদের জীবন-জীবিকা। উপজেলা সদর থেকে আট কিলোমিটার দূরে নতুন হাটি গ্রামের অবস্থান। বিভিন্ন এলাকায় বন্যার প্রভাব আর বৃষ্টির কারণে এই গ্রাম এরই মধ্যে দ্বীপে পরিণত হয়েছে। বর্ষাকালে পর্যটকরা নৌকা ভ্রমণে এসে এই গ্রামের সৌন্দর্যে মুগ্ধ হলেও এর বাসিন্দাদের জীবনমানের উন্নয়নে এগিয়ে আসে না কেউ। বছরের এই সময় তাদের জীবনে নেমে আসে দুর্ভোগ। বাড়ি থেকে বের হতে প্রয়োজন হয় নৌকা। তার ওপর অনেকেরই নেই ব্যক্তিগত নৌকা। ফলে অন্যের বাড়িতে ধরনা দিতে হয়। অনেকেই কলাগাছ দিয়ে তৈরি ভেলায় ঝুঁঁকিপূর্ণ যাতায়াত করে। সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন বিদেশি সংস্থা হাওরাঞ্চলের শিশুদের পাঠদানের লক্ষ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান করলেও নতুন হাটির প্রতি চোখ পড়েনি কারো।

দুঃখ প্রকাশ করে এই কথা বলেন কাগাপাশা ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য বাবুল চন্দ্র দাশ।

তিনি বলেন, ‘এখানে (নতুন হাটি) ৩২টি পরিবার আছে। কৃষিকাজ করেই জীবিকা নির্বাহ করে সবাই। আর বর্ষকালে বিভিন্নভাবে মাছ শিকারের কাজে ব্যস্ত থাকে তারা। সন্তানকে শিশু বয়সেই পরিবারের হাল ধরার কাজে যুক্ত করে অভিভাবকরা।’

পাশের হারুণী গ্রামের কলেজছাত্র সাগর তালুকদার বলেন, ‘বর্ষাকালে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পর্যটকরা এই গ্রামের (নতুন হাটি) আশপাশে এসে ঘুরে যায়। অনেকেই আবার ভ্রমণের ফাঁকে গ্রামের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে। এ ছাড়া ভোটের সময় এলে জনপ্রতিনিধিরা গিয়ে দাঁড়ান তাঁদের সামনে। দেন উন্নয়নের প্রতিশ্রুতিও। কিন্তু নির্বাচিত হওয়ার পর কোনো জনপ্রতিনিধির দেখা পাওয়া যায় না।’ নতুন হাটির শিশু-কিশোরদের শিক্ষার আওতায় আনার ব্যবস্থা নিতে সরকারের প্রতি অনুরোধ করেন তিনি।

কাগাপাশা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. এরশাদ আলী জানান, নতুন হাটি গ্রামে কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না থাকলেও পাশের হারুণী গ্রামে আছে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। তবে বর্ষাকালে এই গ্রামের শিশুদের স্কুলে পাঠানো দুরূহ ব্যাপার। গ্রামটির প্রতি সুদৃষ্টি দিতে সংশ্লিষ্ট বিভাগের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

 

মন্তব্য