kalerkantho

রবিবার। ১৬ জুন ২০১৯। ২ আষাঢ় ১৪২৬। ১২ শাওয়াল ১৪৪০

নগরে কূটনীতিকের বাসায় আগুন

সীতাকুণ্ড ও চকরিয়ায় আগুনে ১৪ ঘর ছাই

দ্বিতীয় রাজধানী ডেস্ক   

২৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চট্টগ্রাম নগরে বৃহস্পতিবার ভারতের সহকারী হাইকমিশনের এক কর্মকর্তার বাসায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ ছাড়া চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ও কক্সবাজারের চকরিয়ায় ১৪ বসতঘর পুড়ে যাই। নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধির পাঠানো খবরে বিস্তারিত :

চট্টগ্রামে ভারতীয় কূটনীতিকের ফ্ল্যাটে আগুন : নগরের খুলশী আবাসিক এলাকায় ভারতের সহকারী হাই কমিশনের এক কর্মকর্তার বাসায় অগ্নিকাণ্ডে রান্নাঘরের দুটি ফ্রিজসহ আসবাবপত্র পুড়ে গেছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে ওই বাসায় আগুন লাগে। তবে এ সময় তিনি বাসায় ছিলেন না।

খুলশী ৪ নম্বর রোডে অ্যারিস্টোক্রেসি-৩ নামে একটি ছয়তলা ভবনের পাঁচতলার এ/৫ ফ্ল্যাটে একা থাকেন ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনের সেকেন্ড সেক্রেটারি শুভাশীষ সিনহা। তাঁর পরিবারের সদস্যরা থাকেন ভারতে।

আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার রেজাউল করিম জানান, ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিটের ছয়টি গাড়ি ঘটনাস্থলে গিয়ে বেলা ১২টা ২০ মিনিটের দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুনে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। ওই বাসার রান্নাঘরে ফ্রিজের তারে শটসার্কিট হয়ে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।

খুলশী থানার অফিসার ইনচার্জ প্রণব চৌধুরী বলেন, ‘এটি নিছক দুর্ঘটনা। আগুনে তেমন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। শুধু রান্নাঘরের দুটি ফ্রিজ ও কিছু আসবাবপত্র পুড়ে গেছে।’

ভারতের সহকারী হাই কমিশনের সেকেন্ড সেক্রেটারি শুভাশীষ সিনহা বলেন, ‘সকালে বাসায় তালা দিয়ে আমি অফিসে চলে যাই। আগুন লাগার খবর পেয়ে বাসায় এসেছিলাম। আগুনে রান্নাঘরের বিভিন্ন জিনিস পুড়ে গেছে।’

সীতাকুণ্ড : উপজেলার একটি আশ্রয়ণ প্রকল্পে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে একটি ব্যারাকের অন্তত ১০টি ঘর ভস্মীভূত হয়েছে। ৯৯৯ থেকে ফোন পেয়ে সীতাকুণ্ড ফায়ার সার্ভিস প্রায় দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণ করে।

সীতাকুণ্ড ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার ওয়াসি আজাদ জানান, বুধবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে ৯৯৯ নম্বর থেকে ফোন করে জানানো হয় বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের শুকলালহাট ভায়েরখীল এলাকায় সরকারি আশ্রয়ণ প্রকল্পে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে পৌনে ২টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সেখানে পৌঁছালেও সড়ক সংকীর্ণ হওয়ায় পাহাড়ের পাদদেশে দমকলের পানিবাহী গাড়িটি পৌঁছাতে পারেনি। পরে আলাদা পাইপ স্থাপন করে আগুন নিয়ন্ত্রণ আনা হয়। বৈদ্যুতিক গোলযোগ থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে।

চকরিয়া : অগ্নিকাণ্ডে চারটি বসতঘর ছাই হয়ে গেছে। অগ্নিকাণ্ডে অন্তত অর্ধকোটি টাকার সম্পদের ক্ষতি হয়েছে।  বুধবার রাতে উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের সুধাংশু পাহাড়ের হিন্দুপাড়ায় এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে। ক্ষতিগ্রস্তরা হলেন সুধাংশু পাহাড় হিন্দুপাড়ার ডা. অরুণ কান্তি দে, যদু কান্তি দে, অমর কৃষ্ণ দে ও অরূপ দে।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, ‘উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের যথাসাধ্য সহায়তা দেওয়া হবে।’

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা