kalerkantho

বুধবার । ২৬ জুন ২০১৯। ১২ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

ফেসবুক থেকে

২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফেসবুক থেকে

ট্রান্সফার

ট্রান্সফার [২০১৭-]

ফ্রান্স

ক্রাইম, থ্রিলার, সাই ফাই

♦ চোখ খুলেই ফ্লোরিয়ান তার পাশেই নিজের মৃতদেহ দেখে চমকে ওঠে। দ্বিতীয় ধাক্কাটা তখন লাগে যখন সে আয়নায় নিজের জায়গায় অপরিচিত আরেকজনের মুখ দেখতে পায়। এই মুখটা আর কারো নয়, অ্যান্টি ট্রান্সফার ব্রিগেডের জাদরেল অফিসার সিলেভইনের। সিলেভইনকে কোনোমতেই বাঁচানো সম্ভব নয় দেখে তার স্ত্রী সোফির অনুরোধে ফ্লোরিয়ানকে সিলেভইনের শরীরে ট্রান্সফার করা হয়েছে। তাও সবার অলক্ষ্যে, সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে। আর সিলেভইন হলো এমন একজন মানুষ যে মনেপ্রাণে ট্রান্সফারদের ঘৃণা করে, তাদের নিধন করাই যার কাজ। ট্রান্সফার এক প্রকার আশীর্বাদ হলেও এর অভিশাপও কিন্তু কম নয়। অনেক অপরাধী মুহূর্তের মধ্যেই নিজেকে কোনো নির্দোষ মানুষের শরীরে স্থাপন করে দিব্যি লুকিয়ে থাকতে পারছে। এমন এক ট্রান্সফার সিরিয়াল কিলারকে ধরতে গিয়েই আসল সিলেভইনের মৃত্যু হয়; যদিও গুটিকয়েক মানুষ ছাড়া সেটা আর কেউ জানে না। এদিকে ধর্মীয় উগ্রপন্থী এক গোষ্ঠী ট্রান্সফারের বিরুদ্ধে চরম প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে, শক্তিশালী এই গ্রুপ ধর্মভয়কে কাজে লাগিয়ে ট্রান্সফারের বিরুদ্ধে জনগণকে ফুঁসিয়ে তুলছে। কিন্তু তাদেরও নিজস্ব এজেন্ডা আছে। আবার আরেক ক্রিমিনাল গ্রুপ বিভিন্ন জায়গায় নাশকতা চালাচ্ছে। কিন্তু তাদের আসল উদ্দেশ্য কেউ জানে না। এরই মধ্যে চলে আসছে পরবর্তী নির্বাচন। ৬ পর্বের ফ্রেঞ্চ মিনি সিরিজ ‘ট্রান্সফার’। ‘গেম অব থ্রোনস’-এর পরের পর্বের আগে এক বসায় দেখে ফেলতে পারেন । খুব একটা খারাপ লাগবে না।

তাজিম রহমান নীশিথ

সিরিয়ালখোর গ্রুপের পোস্ট

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা