kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ মে ২০১৯। ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৮ রমজান ১৪৪০

ফেইসবুক থেকে

১৮ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফেইসবুক থেকে

ব্যাবিলন বার্লিন

ব্যাবিলন বার্লিন [২০১৭-]

জার্মানি

ড্রামা, ক্রাইম, থ্রিলার

 

► জার্মানি, ১৯২৯। ঘটনার শুরু রাশিয়া থেকে জার্মানিতে আগত একটি মালবাহী ট্রেনে ছিনতাইয়ের মাধ্যমে। এই ছিনতাইয়ের ঘটনার নেপথ্যে কারা? কী আছে এই বগির মধ্যে? ডিটেকটিভ জেরোয়েন রাথ, এই সিরিয়ালের কেন্দ্রীয় চরিত্র। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের এই সেনা এখনো পিটিএসডিতে ভুগছে। বার্লিনে রাথের আগমন একটি শক্তিশালী পর্নোগ্রাফিক চক্রকে ধ্বংস করার জন্য। এই চক্রের হর্তাকর্তারা আবার রাষ্ট্রের ক্ষমতাশীল অনেক রাজনৈতিক নেতাকে ব্ল্যাকমেইল করে বেড়াচ্ছে। সেই ফিল্মের মূল কপিগুলো খুঁজে বের করাই রাথের মূল উদ্দেশ্য। ব্লাকমেইলের কেসের তদন্তের সঙ্গে ট্রেনের ঘটনায়ও জড়িয়ে যায় রাথ। সঙ্গী হিসেবে পায় সাহসী শার্লট রিটারকে। এমন কিছু ষড়যন্ত্রের মুখোমুখি তারা হয়, যার সঙ্গে পুরো জার্মানির অস্তিত্ব জড়িয়ে আছে। এদিকে জার্মানিতে ধীরে ধীরে উত্থান ঘটছে নািসবাদের। জার্মান লেখক ভলকার কার্টসারের ডিটেকটিভ রাথ সিরিজের প্রথম বই অবলম্বনে তৈরি হয়েছে এই সিরিজ। ‘ব্যাবিলন বার্লিন’ এখন পর্যন্ত নির্মিত সবচেয়ে ব্যয়বহুল নন-ইংলিশ সিরিজ। চোখ ধাঁধানো সেট, অসাধারণ ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোর, ডিরেকশন, অভিনয় সব কিছুই টপ নচ। সিরিজটির প্রেক্ষাপট এত বিশাল আর জটিল যে এর রিভিউ কয়েক লাইনের মধ্যে দেওয়া সম্ভব নয়। আমি ওপরে যে কাহিনি সংক্ষেপ দিলাম তাতে কাহিনির পাঁচ ভাগও মনে হয় ফুটে ওঠেনি। এত আনএক্সপেক্টেড টুইস্ট আর টার্ন আছে, কে যে কাকে কিভাবে ইউজ করছে কিছুই আগে থেকে বোঝা যায় না। বিশেষ করে শেষ দুটি পর্বে যা দেখাল, পুরোই মাথা নষ্ট। সিরিজটা ইংলিশ নন-ইংলিশ সব সিরিয়ালের মধ্যে আমার প্রিয় টপ টেনে থাকবে।

তাজিম রহমান নীশিথ

সিরিয়ালখোর গ্রুপের পোস্ট

মন্তব্য