kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ মে ২০১৯। ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৮ রমজান ১৪৪০

বহুরূপী জুডি

টিভি সিরিজে গুপ্তঘাতকের ভূমিকায় বাজিমাত করেছেন। সম্ভবত পরের বন্ড গার্লও হচ্ছেন জুডি কোমার। ‘কিলিং ইভ’-এর দ্বিতীয় সিজন প্রচার উপলক্ষে ব্রিটিশ অভিনেত্রীকে নিয়ে লিখেছেন হাসনাইন মাহমুদ

১৮ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বহুরূপী জুডি

জুডি কোমারের খ্যাতি বিবিসির মিনি সিরিজ ‘কিলিং ইভ’-এ বহুরূপী গুপ্তঘাতক ভিলানেল চরিত্র করে। এই সিরিজের সাফল্যে নতুন অনেক প্রস্তাব পাচ্ছেন। এমনকি জেমস বন্ডের পরবর্তী কিস্তিতে বন্ড গার্লের ভূমিকায়ও দেখা যেতে পারে ২৬ বছর বয়সী এই তরুণীকে!

জুডি জন্মেছিলেন লিভারপুলে। বাবা এভারটন ফুটবল ক্লাবে কাজ করলেও জুডির খেলায় আগ্রহ ছিল না। ছোটবেলা থেকেই ঝোঁক ছিল অভিনয়ে। স্কুলের নাটকের শিক্ষক ছোট্ট জুডির মধ্যে দেখতে পান অপার সম্ভাবনা। সেই শিক্ষকের আগ্রহেই অভিনয়ের মঞ্চে পদার্পণ। একটি রেডিও নাটকে ছোট্ট চরিত্র দিয়ে অভিনয়ের খাতা খোলেন। ১৫০ পাউন্ড পারিশ্রমিক পেয়েছিলেন সেবার। ‘দ্য রয়্যাল’ টিভি সিরিজ দিয়ে ছোট পর্দায় অভিষেক। পরে ছোটখাটো কিছু চরিত্র করলেও প্রধান চরিত্র হিসেবে পর্দায় আসেন ভৌতিক টিভি সিরিজ ‘রিমেম্বার মি’ দিয়ে। পরে ‘ডক্টর ফস্টার’, ‘থার্টিন’ ইত্যাদি সিরিজেও অভিনয় প্রশংসা পায়। ভিন্নধর্মী চরিত্রের রূপায়ণে শুরু থেকেই আগ্রহ ছিল জুডির। তিনি বলেন, ‘অভিনয় তখনই উপভোগ্য হয় যখন চরিত্রের মধ্যে বৈচিত্র্য থাকে।’ এখন পর্যন্ত বেশ কিছু বৈচিত্র্যময় চরিত্র অবশ্য করেছেন অভিনেত্রী।

সেগুলোর মধ্যে ‘দ্য হোয়াইট প্রিন্সেস’ অন্যতম। এ সিরিজে রানি এলিজাবেথের ভূমিকায় অভিনয় জুডিকে নিয়ে গেছে অন্য উচ্চতায়। ছোট পর্দায় সাফল্যের মধ্যেই বড় পর্দায় অভিষেক ‘ইংল্যান্ড ইজ মাইন’ দিয়ে। এখানেও প্রশংসা পান।

চরিত্র বাছাইয়ের ক্ষেত্রে অনেক বেশি খুঁতখুঁতে এই তারকা। এ ক্ষেত্রে অনুসরণ করেন কিংবদন্তিতুল্য অভিনেত্রী হেলেন মিরেনকে। চরিত্র পছন্দ না হওয়ায় ডজনখানেক চিত্রনাট্য ফিরিয়ে দিয়েছেন এর মধ্যেই!  

২০১৮ সালের আগ পর্যন্ত জুডির পরিচিত ছিল একটা সীমিত পর্যায়ে। কিন্তু গেল বছর ‘কিলিং ইভ’ দিয়ে সব ছাপিয়ে গেছেন। সিরিজটিতে রুশ গুপ্তঘাতক ভিলানেল চরিত্রটি কখনো রূপ নেয় প্যারিসের শিল্পবোদ্ধার, কখনো বা ইতালির বখে যাওয়া মেয়ের। টিভি সিরিজটির কাহিনি গুপ্তঘাতক ভিলানেল ও ব্রিটিশ গুপ্তচর ইভ পোলাস্ট্রির মধ্যে ইঁদুর-বিড়াল দৌড় নিয়ে। ইভ চরিত্রে অভিনয় করেন সান্ড্রা ওহ। জুডিতে মুগ্ধ তিনিও, ‘সব পুরস্কার শুধু ওরই প্রাপ্য। চরিত্রের ভেতরে এভাবে মিশে যাওয়ার সহজাত প্রবৃত্তি কম অভিনেত্রীরই থাকে।’

প্রথম পর্বের ব্যাপক জনপ্রিয়তার পর ‘কিলিং ইভ’-এর দ্বিতীয় সিজনের প্রচার শুরু হয়েছে। ঘোষণা হয়েছে তৃতীয় সিজনও। কথা চলছে বন্ড গার্ল হওয়া নিয়েও। এটা নিয়ে ধোঁয়াশা থাকলেও আরেক গোয়েন্দা এরকুল পোয়েরের কাহিনি নিয়ে ‘ডেথ অন দ্য নাইল’-এ দেখা যাবে জুডিকে। 

মন্তব্য