kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৭ জুন ২০১৯। ১৩ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

আবেগের অ্যালবাম

শন মাইকেল লিওনার্দ অ্যান্ডারসনকে সবাই চেনে বিগ শন    

১৯ মার্চ, ২০১৫ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আবেগের অ্যালবাম

২০০৫ সাল। ১৬ বছরের শন তখন হাই স্কুলের ছাত্র। স্থানীয় এফএম রেডিও স্টেশনে সাক্ষাৎকার দিতে এসেছিলেন গায়ক-প্রযোজক কেনি ওয়েস্ট। প্রিয় শিল্পীকে নিজের র‌্যাপ প্রতিভা দেখানোর সুযোগ হাতছাড়া করতে চাননি শন। পড়িমরি করে ছুটলেন। শুরুতে ওয়েস্ট কিছুটা বিরক্ত হলেও শেষ পর্যন্ত খানিকটা বাধ্য হয়েই দেখতে হলো নবীন র‌্যাপারের পারফমরমেন্স। এক দশক পেরিয়ে গেলেও সে ঘটনা এখনো পরিষ্কার মনে করতে পারেন শন, 'ঢোকার সুযোগ পাওয়ার পর আমরা ছুটলাম। দরজায় পৌঁছে দেখি তিনি (ওয়েস্ট) মাথা নাড়ছেন। সেসবের তোয়াক্কা না করে ফ্রিস্টাইল র‌্যাপ করলাম। এরপর একটা ডেমো ক্যাসেট রেখে বেরিয়ে এলাম।' এ ঘটনার দুই বছর পর ওয়েস্টের সংগীত প্রযোজনা সংস্থা 'গুড মিউজিক' চুক্তি করল শনের সঙ্গে। ওয়েস্ট-শন সে সম্পর্ক এখনো আগের মতোই। শনের মুক্তি পাওয়া তিনটি অ্যালবামই বের হয়েছে গুড মিউজিকের ব্যানারে। সর্বশেষ 'ডার্ক স্কাই প্যারাডাইস'-এ শনের সঙ্গে গাওয়া অতিথি শিল্পীদের তালিকায় ওয়েস্টও আছেন। এ বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি মুক্তির পর থেকেই টানা বিলবোর্ড টু হান্ড্রেডের শীর্ষে ছিল। যা এ সপ্তাহে রয়েছে ছয়ে।

জীবনের প্রথম টপচার্টের শীর্ষে যাওয়া হিপ হপ গায়কের এ অ্যালবাম মুক্তির পর যেমন সমালোচকদের প্রশংসা পেয়েছে তেমনি ব্যবসায়িক সাফল্যও পেয়েছে। ১৬টি রিভিউয়ে অ্যালবামটির গড় স্কোর ৭৩। প্রথম সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে বিক্রি হয়েছে এক লাখ ৭৩ হাজার কপি। যা শনের ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ। এই সাফল্যের কারণ হিসেবে শিল্পী বলছেন ভালো প্রস্তুতির কথা। দুই বছর ধরে বিভিন্ন স্টুডিওতে রেকর্ড হয়েছে অ্যালবামটি। কেনি ওয়েস্ট ছাড়াও অতিথি হিসেবে গেয়েছেন আরিয়ানা গ্র্যান্ডে, ক্রিস ব্রাউন, ড্রেকের মতো শিল্পীরা। অ্যালবামের 'ডার্ক স্কাই', 'ব্লেসিংস', 'প্যারাডাইস' গানগুলো বেশি প্রশংসিত হয়েছে। তবে 'বিলবোর্ড' অ্যালবাম রিভিউতে বিশেষভাবে উল্লেখ করেছে 'ওয়ান ম্যান ক্যান চেঞ্জ দ্য ওয়ার্ল্ড' গানটির কথা। শন-কেন-জনের গাওয়া গানটিতে সম্মান জানানো হয়েছে শনের প্রয়াত দাদিকে। গানের ব্যাকগ্রাউন্ডে ব্যবহার করা হয়েছে পিয়ানো আর শন ও দাদির ধারণকৃত কথোপকথন। 'আমি আমার সর্বোচ্চ করেছি, আশা করি সবাই এটার প্রশংসাই করবে।' এ গান সম্পর্কে এমনটাই ছিল শনের মন্তব্য। দুটি শাখায় গ্র্যামি মনোনয়ন পেলেও এখন পর্যন্ত ভাগ্যের শিকে ছিঁড়েনি। পুরস্কারটুরস্কার নিয়ে অবশ্য বেশি চিন্তিত নন শিল্পী, 'মাত্র চার বছর আগে আমার প্রথম অ্যালবাম এসেছে। এখনই পুরস্কার নিয়ে ভাবতে চাই না। সামনে অনেক লম্বা সময় পড়ে আছে।'

 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা