kalerkantho

বুধবার । ২৬ জুন ২০১৯। ১২ আষাঢ় ১৪২৬। ২৩ শাওয়াল ১৪৪০

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়

আইন বিভাগে বেআইনি নিয়োগ বোর্ড

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

২৫ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) আইন বিভাগে নিয়ম ভেঙে শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড করা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিভাগের আগের একটি বোর্ডের সুরাহা না করে নতুন বিজ্ঞপ্তিতে এ নিয়োগ বোর্ড করছে প্রশাসন। আগামী ২৭ মে এই শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড অনুষ্ঠিত হবে বলে রেজিস্ট্রার দপ্তর সূত্রে জানা গেছে।

বিভাগীয় ও রেজিস্ট্রার অফিস সূত্রে জানা যায়, বিভাগীয় প্লানিং কমিটির সুপারিশে রেজিস্ট্রার বরাবর আইন বিভাগে প্রভাষক পদে দুটি শূন্য পদের শিক্ষক নিয়োগের চাহিদা দেওয়া হয়। চাহিদা অনুযায়ী, গত ৩০ এপ্রিল দুটি শূন্য পদে প্রভাষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। গত ১৪ মে এই পদ দুটিতে আবেদনের শেষ সময় বেঁধে দেওয়া হয়। নির্ধারিত সময়ে দুটি পদের বিপরীতে ১১ জন প্রার্থী আবেদন করেন। যাচাই-বাছাই শেষে একজনকে বাদ দেওয়া হয়েছে। আগামী ২৭ মে নিয়োগ বোর্ডের মাধ্যমে প্রার্থীদের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হবে।

জানা গেছে, বিভাগীয় সভাপতি অধ্যাপক ড. জহুরুল ইসলাম তাঁর শেষ কার্যদিবসে শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড করতে যাচ্ছেন। প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, রবিবার থেকে গ্রীষ্মকালীন ও ঈদের ছুটিতে যাবে বিশ্ববিদ্যালয়। আর ছুটির পরের দিন অনুষ্ঠিত হবে আইন বিভাগের শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড। এ নিয়ে শিক্ষকদের মধ্যে চলছে শোরগোল।

তবে প্রশাসনের দাবি, বিভাগের নিয়োগে অচল অবস্থা দূর করতে ও প্লানিং কমিটির চাহিদা অনুযায়ী নিয়োগ বোর্ড করা হচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, ‘বিভাগের কাছে আগের বোর্ড নিয়ে আইনি ব্যাখ্যা চেয়েছিলাম। তারা সর্বশেষ প্লানিং কমিটির সিদ্ধান্ত হিসেবে আমাকে জানিয়েছেন, নিয়োগ বোর্ড করায় আইনি কোনো বাধা নেই। তাদের ব্যাখ্যা ও সুপারিশের আলোকে নিয়োগ বোর্ড করা হচ্ছে।’

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা