kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

ভাশুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

স্ত্রীকে তালাক দিলেন প্রবাসী স্বামী

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

২২ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার এক গৃহবধূ তাঁর ভাশুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছেন। গৃহবধূর অভিযোগ, স্বামী বিদেশে থাকার সুযোগ নিয়ে তাঁর ভাশুর গভীর রাতে ঘরে প্রবেশ করে তাঁকে ধর্ষণ করেছেন। পরে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের কাছে এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করলে স্বামী তাঁকে নষ্টা নারী অপবাদ দিয়ে তালাক দেন। এদিকে গত সোমবার রাতে ভুক্তভোগী নারী ভাশুর মো. আফতাব উদ্দিনকে (৪০) অভিযুক্ত করে নান্দাইল থানায় মামলা করেছেন।

মামলার বিবরণী ও গৃহবধূর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, পাঁচ বছর আগে উপজেলার বীরকামটখালী গ্রামের হাফিজ উদ্দিনের ছেলে আফাজ উদ্দিনের সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। বিয়ের পর স্বামী তাঁকে শ্বশুর বাড়িতে রেখে সৌদি আরব চলে যান। এর কিছুদিন পর থেকেই আফতাব তাঁর প্রতি কুদৃষ্টি দেওয়ার পাশাপাশি শরীরের বিভিন্ন স্থানে হাত দেওয়ার চেষ্টা করতেন। গত ১০ এপ্রিল রাতে নিজের ঘরে ঘুমাতে যাওয়ার অল্প সময় পরই আফতাব গৃহবধূর ঘরে প্রবেশ করে এবং তাঁকে ধর্ষণ করে। পরে গৃহবধূ কান্নাকাটি করে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের কাছে পুরো ঘটনাটি খুলে বললে পরের দিনই তাঁকে কিশোরগঞ্জে বাবার বাড়িতে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এদিকে গত বৃহস্পতিবার রাতে নিজের বাবার বাসার ঠিকানায় তালাকের নোটিশ পেয়েছেন বলে দাবি করেছেন নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ।

এ বিষয়ে জানতে গতকাল অভিযুক্ত আফতাবের বাড়িতে গিয়েও তাঁর সঙ্গে দেখা করা সম্ভব হয়নি। তবে গৃহবধূর শাশুড়ি আয়েশা আক্তার পুরো ঘটনা অস্বীকার করেছেন। এদিকে প্রতিবেশীরা জানায়, ওই গৃহবধূর স্বামী বিদেশ চলে যাওয়ার পর থেকে আফতাব প্রতিনিয়ত ওই নারীকে যৌন হয়রানি করত।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা