kalerkantho

সোমবার। ১৭ জুন ২০১৯। ৩ আষাঢ় ১৪২৬। ১৩ শাওয়াল ১৪৪০

চৌহালীতে মামলা তুলে নিতে বাদীর চোখে কাঁচির ঘা

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৯ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিরাজগঞ্জের চৌহালীতে লুটপাট ও ভাঙচুরের অভিযোগে দায়ের করা মামলা তুলে নিতে আসামিরা ঘরে আটকে বাদীর চোখে কাঁচি দিয়ে আঘাত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মামলার বাদী উপজেলা মহিলা লীগের সভানেত্রী ও খাসপুখুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নারী সদস্য শিরিন সুলতানাকে (৫০) গুরুতর অবস্থায় টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলার সময় আসামিরা জোর করে সাদা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়েছে বলেও ভুক্তভোগী নারী দাবি করেছেন। আহত শিরিন সুলতানা জানান, গত ১০ মার্চ সকাল ১১টার দিকে চৌহালী উপজেলার কোদালিয়া গ্রামে তাঁর বাড়িতে পূর্বশত্রুতার জেরে খাসপুখুরিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আকবর ও মোখলেছুরের নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়। তখন তারা স্বর্ণালংকার ও আসবাবপত্র লুট করে নেয়। এ ঘটনায় গত বুধবার সিরাজগঞ্জের চৌহালী আমলি আদালতে আলী আকবরসহ ১১ জনকে আসামি করে মামলা করলে আদালত পুলিশকে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন। মামলার পরদিন বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শিরিন সুলতানার বাড়িতে ঢুকে আলী আকবরের নেতৃত্বে অন্য আসামিরা জোর করে সাদা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়। এ সময় তারা তাঁর চোখে কাঁচি দিয়ে আঘাত করে।  হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মো. সফিকুল ইসলাম সজিব জানান, রোগীর ডান চোখটি গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা