kalerkantho

বুধবার । ২২ মে ২০১৯। ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৬ রমজান ১৪৪০

ছাতকে নামমাত্র মূল্যে সরকারি গাছ বিক্রি

ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুনামগঞ্জের ছাতকে মসজিদ উন্নয়নের নামে উপজেলা পরিষদের পাঁচটি বড় গাছ নামমাত্র মূল্যে বিক্রি করা হয়েছে। এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক সমালোচনা চলছে।

জানা গেছে, উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদকে সরকারি টাকায় মডেল মসজিদ হিসেবে নির্মাণের জন্য টেন্ডার হয়।

এ ক্ষেত্রে মসজিদ এলাকার পাঁচটি গাছ বিক্রির জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবেদা আফসারীকে আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। গত ১৩ এপ্রিল অনেকটা গোপনে কমিটির মাধ্যমে নিলাম দেখিয়ে বড় আকারের তিনটি রেইন ট্রি ও দুটি মেহগনিগাছ ৭৫ হাজার টাকায় সিন্ডিকেট করে কমিটির লোকজনই কিনে নেয়।

পরে ওই দিনই বিকেলে এক লাখ ৭০ হাজার টাকায় গাছগুলো এক ব্যবসায়ীর কাছে বিক্রি করা হয়।

স্থানীয় গাছ ব্যবসায়ীদের মতে, সাত লাখ টাকা মূল্যের গাছ মাত্র ৭৫ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে। রেইন ট্রি প্রতি ঘনফুট কাঠের বাজার মূল্য এক হাজার থেকে এক হাজার ২০০ টাকা ও মেহগনি কাঠের মূল্য এক হাজার ৫০০ থেকে দুই হাজার টাকা বলে তাঁরা জানান।

ছাতক পৌরসভার কাউন্সিলর জসিম উদ্দিন সুমন জানান, সরকারি পাঁচটি গাছ বিক্রিতে অনিয়ম হয়েছে। পুরনো গাছগুলো স্বল্পমূল্যে বিক্রি করা হয়েছে। এতে উপজেলা পরিষদ মসজিদ আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

উপজেলা বন কর্মকর্তা এমদাদ হোসেন এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও গাছ বিক্রয় কমিটির আহ্বায়ক আবেদা আফসারী দাবি করেন, এ ব্যাপারে কোনো সিন্ডিকেট হয়ে থাকলেও তাঁর জানা নেই। তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান বলেন, ‘গাছ বিক্রিতে সিন্ডিকেট হয়েছে এবং স্বল্পমূল্যে গাছগুলো বিক্রি হয়েছে বলে শুনেছি। উপজেলা পরিষদের সমন্বয় কমিটির আগামী সভায় এ বিষয়ে আলোচনা হবে।’

 

মন্তব্য