kalerkantho

শনিবার । ২৫ মে ২০১৯। ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৯ রমজান ১৪৪০

বাজিতপুরে মাদরাসারশিশু শিক্ষার্থীকে শিক্ষকের মারধর

নিজস্ব প্রতিবেদক, হাওরাঞ্চল   

২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে ১১ বছরের এক মাদরাসাছাত্রের ওপর অমানবিক নির্যাতন চালানোর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনা ঘটেছে গতকাল সোমবার উপজেলার দিলালপুর আল জামিয়াতুল আরাবিয়া মিফতাহুল উলুম মাদরাসায়। মিহাদুল্লাহ বারী নামে শিশুটি বাজিতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিত্সাধীন। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা হাবিবুর রহমান গতকালই বাদী হয়ে বাজিতপুর থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন।

অভিযোগ উঠেছে, দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র মিহাদুল্লাহ বারীকে সামান্য ভুলের কারণে ওই মাদরাসার শিক্ষক আজিজুল ইসলাম বেধড়ক পিটিয়ে আহত করেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিত্সক জানান, শিশুটির পিঠ, হাতসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন থাকার বিষয় জরুরি বিভাগের রেজিস্টারে লিপিবদ্ধ করা হয়েছে।

থানায় দায়ের করা অভিযোগ ও শিশুটির পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মিহাদুল্লাহ গতকাল সকালে মাদরাসা থেকে পালিয়ে নিজ বাড়ি নোয়াহাটায় চলে যায়। পরে তার পিঠে ও বাম হাতে পাঁচ-ছয়টি স্থানে রক্তাক্ত জখম চোখে পড়ে। শিশুটি মা-বাবাকে জানায়, আজিজুল হুজুর তাকে বেত দিয়ে এভাবে পিটিয়েছেন।

অভিযুক্ত শিক্ষক আজিজুল ইসলামের মোবাইল ফোনে কথা বলার চেষ্টা করা হলে তিনি প্রথমে ফোন ধরেন। পরে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে লাইন কেটে দিয়ে ফোন বন্ধ করে দেন। পরে মাদরাসার অধ্যক্ষ আব্দুল আজিজের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কথা বলার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

 

মন্তব্য