kalerkantho

শনিবার । ২৫ মে ২০১৯। ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৯ রমজান ১৪৪০

স্কুলছাত্রীকে যৌন পীড়ন

সেই শিক্ষককে পাঠদানে বিরত থাকার নির্দেশ

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজবাড়ী সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের ধর্মসী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. আব্দুল কাইয়ুমকে পাঠদান থকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। ছাত্রীদের যৌন হয়রানির অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পেয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার নির্দেশে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা গত বৃহস্পতিবার ওই শিক্ষককে এসংক্রান্ত চিঠি দেন। সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাসরিন আক্তার জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর তা তদন্তে কমিটি গঠন করা হয়। সেই সঙ্গে ওই শিক্ষককে প্রাথমিকভাবে শ্রেণি পাঠদান থেকে বিরত থাকতে চিঠি দেওয়া হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর সে অনুযায়ী বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হোসনে ইয়াসমিন করিমী জানান, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আগে থেকেই বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে। তবে এবার অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাঁর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। উপজেলা শিক্ষা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইমদাদুল হক বিশ্বাস জানান, আগেও বিভিন্ন অভিযোগের ভিত্তিতে সহকারী শিক্ষক আব্দুল কাইয়ুমের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এবারের অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাঁর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। তবে সহকারী শিক্ষক আব্দুল কাইয়ুম জানান, তিনি এ পর্যন্ত চারটি স্কুলে চাকরি করেছেন। নানা কারণে তাঁর বিরুদ্ধে সাত-আটটি বিভাগীয় মামলা হয়েছে। বর্তমানে তাঁর বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে, তা ষড়যন্ত্রমূলক বলে দাবি করেন তিনি।

 

মন্তব্য