kalerkantho

শুক্রবার । ২৪ মে ২০১৯। ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৮ রমজান ১৪৪০

মিনি কম্পিউটার বানিয়েছে মদনের এক স্কুলছাত্র

হাফিজুর রহমান চয়ন, হাওরাঞ্চল   

২০ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নিজের মেধা, অদম্য ইচ্ছাশক্তি আর বাবার অনুপ্রেরণায় মিনি কম্পিউটার তৈরি করেছে নেত্রকোনার মদন উপজেলার দশম শ্রেণির ছাত্র কামরুজ্জামান আল হাদি। মাঝে মধ্যে বাসার কম্পিউটারে ত্রুটি দেখা দিলে হাদি নিজেই তা মেরামত করত। আর তা থেকেই তার মাথায় আসে কম্পিউটার বানানোর চিন্তা।

প্রাথমিকভাবে মোবাইল ফোন সেটের মনিটর ব্যবহার করে, টিনের সিপিইউ-বক্স বানিয়ে তাতে মোবাইল ফোন সেটের মাদারবোর্ড ব্যবহার করে এবং দেওয়া হয়েছে সিপিইউয়ের পূর্ণাঙ্গ সেটআপ। পরিত্যক্ত সিডির চাকা ও টিনের আবরণের মধ্যে তার সংযুক্ত করে হাদি তৈরি করেছে মাউস। টিনের তৈরি সিপিইউ থেকে একটি সাউন্ড বক্সের সংযোগ দেওয়া হয়। মোবাইল ফোনসেটে ব্যবহূত ব্যাটারির মাধ্যমেই চলে ওই মিনি কম্পিউটারের অডিও, ভিডিও, এমএস ওয়ার্ড ও ইন্টারনেট প্রগ্রাম। ছয় মাস ধরে কাজ করে ছোট আকারের ওই কম্পিউটার বানাতে হাদির খরচ হয়েছে প্রায় দুই হাজার টাকা।

জাহাঙ্গীরপুর ফাজিল মাদরাসার শিক্ষার্থী কামরুজ্জামান আল হাদি জানায়, ভবিষ্যতে প্রযুক্তিনির্ভর মানুষ হিসেবে প্রতিটি শিক্ষার্থীর নিজেকে গড়ে তোলা উচিত।

হাদির বাবা মাওলানা সাইদুর রহমান জানান, প্রথমে তাঁরা বিরক্ত হলেও পরে ছেলের অদম্য ইচ্ছার প্রতি সমর্থন জানান এবং যাবতীয় খরচ বহন করেন।

এ বিষয়ে মদন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওয়ালিউল হাসান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘হাদির মিনি কম্পিউটার তৈরির বিষয়টি আমি জানি এবং সেটি দেখেছিও। তবে এ বিষয়ে সে কতটুকু সফল হতে পেরেছে সে সম্পর্কে আমার কোনো ধারণা নেই।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমি ওই ছেলেটির ইচ্ছাশক্তিকে স্বাগত জানাই।’

জাহাঙ্গীরপুর ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মো. মঞ্জুরুল হক খান জানান, মদন উপজেলা থেকে জেলাপর্যায়ে বিজ্ঞান মেলায় অংশগ্রহণ করে এরই মধ্যে সুনাম কুড়িয়েছে হাদি।

 

মন্তব্য