kalerkantho

রবিবার। ১৬ জুন ২০১৯। ২ আষাঢ় ১৪২৬। ১২ শাওয়াল ১৪৪০

কিশোরগঞ্জে সাগর হত্যা, গ্রেপ্তার ৫

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৯ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিশোরগঞ্জ শহরে শিশু সাগর মিয়া (১২) হত্যাকাণ্ডে থানায় একটি হত্যা মামলা করা হয়েছে। শিশুটির মা আসমা আক্তার বাদী হয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার মামলাটি করেন। এ মামলায় হারুয়া এলাকার বাসিন্দা আবু হানিফ ওরফে হাছু মিয়াকে প্রধান করে মোট ১০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহারভুক্ত তিনজনসহ মোট পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড আবেদন করে তাদের গতকাল দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো শহরের হারুয়া বউবাজার এলাকার আশরাফুল ইসলাম বাবু (২১), মো. শহীদ (১৯), মো. শাফি (১৫), রাকিব মিয়া (২২) ও সজল (২১)।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ওসি মো. আবু বকর সিদ্দিক বলেন, ‘পুলিশ বিষয়টি নিয়ে তদন্তে নেমেছে। হত্যাকাণ্ডের মূল আসামিসহ অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। আশা করি শিগগিরই সব আসামিকে আইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে।’ 

গত মঙ্গলবার যৌন হয়রানির ঘটনাকে কেন্দ্র করে শহরের হারুয়া এলাকার দুই মহল্লার বিরোধের জের ধরে শিশু সাগর মিয়া খুন হয়। সে সওদাগরপাড়ার মো. বকুল মিয়ার ছেলে। ঘটনার পর ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী রাতে হারুয়া এলাকার দেড় শতাধিক দোকানপাট ভাঙচুর করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ সেদিন ১১ রাউন্ড গুলি ছোড়ে। বুধবার সাগরের লাশ নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে এলাকার লোকজন। 

সাগরের মা আসমা আক্তার ও স্বজনরা সাংবাদিকদের জানায়, এলাকার প্রভাবশালী আবু হানিফ ওরফে হাছু মিয়ার নির্দেশে সাগরকে হত্যা করা হয়। কাজেই তাকেও দ্রুত গ্রেপ্তার করা উচিত। তারা জানায়, বুধবার রাতে পাগলা মসজিদে জানাজা শেষে স্থানীয় গোরস্তানে দাফন করা হয় হয় সাগরের লাশ। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা