kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ মে ২০১৯। ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৭ রমজান ১৪৪০

ভালুকায় ‘খামার নিয়ে বিরোধ’

শ্রমিক ইউনিয়ন সভাপতিকে তুলে নিয়ে পিটিয়ে জখম

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১৭ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ময়মনসিংহের ভালুকায় অটোটেম্পো শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি লুেফ ওয়ালী রব্বানীকে তুলে নেওয়ার প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা পর আহত অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত রবিবার রাতে উপজেলার বিরুনিয়া ইউনিয়নের নীলেরটেক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সোমবার রাতে ১৩ জনের নাম উল্লেখসহ ২০-২৫ জনকে আসামি করে ভালুকা মডেল থানায় মামলা হয়েছে। দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রব্বানী ভালুকা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক ডা. এম আমান উল্যার ভাতিজা।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত রবিবার রাতে নীলেরটেক এলাকায় নিজের মাছের খামার পাহারা দিচ্ছিলেন রব্বানী। রাত দেড়টার দিকে সেখান থেকে তাঁকে তুলে নেওয়া হয়। ঘটনাটি জানতে পেরে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ ও স্থানীয়দের খবর দেয় তাঁর পরিবার। স্থানীয়দের সহায়তায় রাতেই রব্বানীকে খুঁজতে শুরু করে পুলিশ। পরে ভোর ৫টায় ওই মাছের খামারের পাহারার ঘর থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে একটি ধান ক্ষেতের পাশে তাঁকে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে জানায়। সেখান থেকে তাঁকে উদ্ধার করে পুলিশ ভালুকার একটি হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। আহতের পরিবারের দাবি, মাছের খামার নিয়ে বিরোধের জের হিসেবে তাঁকে তুলে নিয়ে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে।

ভালুকা মডেল থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার বলেন, ‘এই ঘটনায় মামলা হয়েছে এবং আবুল কালাম ও আবদুর রাউফ নামে দুজনকে গ্রেপ্তার করে গতকাল আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।’

মন্তব্য