kalerkantho

কাপাসিয়ায় বাজারে ডাকাতি

৩০ লক্ষাধিক টাকার সম্পদ লুট

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, গাজীপুর   

২৪ এপ্রিল, ২০১৫ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার পুরনো সিঙ্গুয়া বাজারে ব্যাপক লুটতরাজ চালিয়েছে ডাকাতদল। ডাকাতরা বাজারের ১৫টি দোকানের তালা ভেঙে সাড়ে চার লাখ টাকাসহ ৩০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটে নিয়েছে। ওই সময় ডাকাতরা বাজারের তিন নৈশপ্রহরীকে বেদম মারধর করে হাত-পা বেঁধে ফেলে রাখে। গত বুধবার গভীর রাতে সশস্ত্র ডাকাতদল ওই লুটতরাজ চালায়। এর আগে একই রাতে পাশের চরদুর্লভ খাঁ গ্রামে এক শিক্ষকের বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাত হানা দেওয়ার খবর পেয়েও পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়নি বলে অভিযোগ গ্রামবাসীর।

সিঙ্গুয়া বাজারের নৈশ প্রহরী আবদুস ছাত্তার জানান, রাত দেড়টার দিকে ২২ থেকে ২৫ জনের সশস্ত্র ডাকাতদল বাজারে হানা দেয়। ডাকাতরা তিনিসহ আহমদ আলী ও আসাদকে বেদম মারধর করে বেঁধে ফেলে। এ সময় দুজন নৈশপ্রহরী ছুটে পালিয়ে যায়। পরে ডাকাতদল বাজারের অন্তত ১৫টি দোকানের তালা ভেঙে লুটতরাজ চালায়।

জুয়েলারি ব্যবসায়ী ঝন্টু চন্দ্র বর্মণ জানান, ডাকাতরা ১৫টি দোকানের তালা ভেঙে নগদ অন্তত সাড়ে চার লাখসহ ৩০ লাখ টাকার মালামাল লুটে নিয়েছে।

আবদুল আওয়াল মাস্টার অভিযোগ করেন, ডাকাতদল তাঁর বাড়িতে হানা দেওয়ার পর মোবাইল ফোনে বিষয়টি পুলিশকে জানালেও পুলিশ এগিয়ে আসেনি।

তবে লুটতরাজের ঘটনাটি তেমন কিছু নয় দাবি করে কাপাসিয়া থানার উপপরিদর্শক মঞ্জুদ্দোহা বলেন, কিছু দোকানের তালা কেটে যৎসামান্য টাকা, মোবাইল ফোনসেট ও কিছু জিনিসপত্র নিয়ে গেছে। ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলে মামলা নেওয়া হবে।

 

মন্তব্য