kalerkantho

শুক্রবার  । ১৮ অক্টোবর ২০১৯। ২ কাতির্ক ১৪২৬। ১৮ সফর ১৪৪১              

গর্ভাবস্থায় সকালের অস্বস্তি কাটাবেন যেভাবে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ মার্চ, ২০১৯ ১৭:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গর্ভাবস্থায় সকালের অস্বস্তি কাটাবেন যেভাবে

সকালের অস্বস্তি বা দুর্বলতা প্রায়ই হতাশার কারণ হয়ে ‌ওঠে। 

প্রায় ৭৫ থেকে ৮০ শতাংশ গর্ভবতী নারীরই সকালে ক্লান্তি এবং বমিভাব দেখা দেয়। এটি সাধারণত গর্ভাবস্থার ষষ্ঠ সপ্তায় শুরু হয় এবং অষ্টম সপ্তাহের মধ্যে শেষ হয়।

কিন্তু এ নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। এখানে কিছু প্রাকৃতিক গৃহ প্রতিকার দেওয়া হলো যা আপনি সকালের অসুস্থতা থেকে রক্ষা পেতে চেষ্টা করতে পারেন : 

আদা
বমি বমি ভাব দূর করতে একটি সাধারণ প্রাকৃতিক প্রতিকার আদা। আদার রসে এমন উদ্দীপক উপাদান রয়েছে যা আপনার পাকস্থলিকে শান্ত করতে পারে।

যেভাবে সেবন করবেন: অস্বস্তি বা বমি বমি ভাব থেকে পরিত্রাণ পেতে সকালে এক চা চামচ আদা রস সেবন করুন। এ ছাড়া খেতে পারেন আদা চা বা আদা ক্যান্ডিও।

পুদিনা পাতা
পুদিনা পাতা কেবল আপনাকে সতেজ ও ঠাণ্ডা করবে তা নয়, বমিভাব দূর করতেও এটি সহায়ক হতে পারে।

যেভাবে সেবন করবেন: কয়েকটি পুদিনা পাতা চিবিয়ে খেতে পারেন অথবা এর গন্ধ নিয়েও গর্ভাবস্থায় সকালের অস্বস্তি থেকে পরিত্রাণ পেতে পারেন।

লেবুর জুস
লবণ ও এক চিমটি চিনি সহযোগে লেবুর রস সেবন সকালের অসুস্থতার জন্য একটি দুর্দান্ত প্রতিকার। লেবুর স্বাদ বমিভাব দূর করতেও সাহায্য করে।

যেভাবে সেবন করবেন: আপনি আদা ও লেবুর রস একসঙ্গে পানিতে মিশিয়ে পান করতে পারেন অথবা পান করতে পারেন কেবল লেবুর রস মিশ্রিত পানি।

ডাবের পানি
ডাবের পানিতে রয়েছে ভিটামিন, খনিজ এবং ফাইবার। এতে অনেক স্বাস্থ্য সুবিধা রয়েছে। এ ছাড়া নারকেল তেল গর্ভাবস্থার কোষ্ঠকাঠিন্য ও হৃদরোগ নিরাময়ে সাহায্য করে।

যেভাবে পান করবেন: একটি গ্লাস নারকেলের পানিতে একটি লেবু রস মেশান। প্রতি ১৫ মিনিট পর পর এক চুমুক পান করুন।

গোলাপজল ও দুধ
আয়ুর্বেদীয় শাস্ত্রমতে, গোলাপজল ও দুধের মিশ্রণ সকালের অসুস্থতা মোকাবিলায় অত্যন্ত কার্যকরী।

যেভাবে সেবন করবেন: এক গ্লাস দুধে কয়েক ফোঁটা গোলাপ জল মেশান। এটি ফুটিয়ে নিন। কুসুম গরম থাকতে পান করুন। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে প্রতিদিন এক কাপ গোলাপজল মিশ্রিত দুধে এক চা চামচ ঘি মিশিয়েও পান করতে পারেন। 

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা