kalerkantho

রবিবার। ১৬ জুন ২০১৯। ২ আষাঢ় ১৪২৬। ১২ শাওয়াল ১৪৪০

ফেসবুক থেকে পাওয়া

শিক্ষার কোনো বয়স নেই

২৭ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঘটনাটা টিউশনি করাতে গিয়ে। স্টুডেন্টকে বিড়ালের কম্পোজিশন লিখে দেওয়ার পর বললাম—এটা দিয়ে ১০টি বাক্য লেখার চেষ্টা করবে। তাহলে সহজে মনে থাকবে। চেষ্টা করাই ছাত্র-ছাত্রীর ধর্ম। যেমন—The cat is a pet animal. It's name is Mini. It is so pretty. সেখানে লিখবা The dog is a pet animal. It's name is dogy. তারপর দিলাম বইয়ের কম্পোজিশন লিখতে। সে লিখছে, I have a book. it's name is mini. it has four legs, two eyes. ধমক দিয়ে বললাম, ‘বইয়ের পা গজাইছে কই দিয়া! বাংলা বুঝে লিখবা। চোখ আছে বইয়ের? তা থাকলে এত দিন তোমারে দেখতে দেখতে আন্ধা হইয়া যাইত।’ পরে বইয়ের কম্পোজিশন শিখিয়ে দিলাম।

পরের দিন My favourite teacher বিষয়ে একই রকম করে লিখতে বললাম। যথারীতি সে লিখেছে :

My favourite teachers name is umme nipa. She has 150 pages. We read many kinds of teachers. I have nice collection of teachers at my home. Nipa is one of them. I read her everyday...don't judge a teacher by her cover.

—আমার কাভার আছে? কী লিখছো এগুলো? সে বলল, ‘কেন আপু, চেষ্টা করাই তো আমাদের ধর্ম।’ বললাম, ‘তোমারে পড়াতে গিয়ে আমার চরম শিক্ষা হয়েছে।’

সে দাঁত কেলিয়ে বলে, ‘আপু, শিক্ষার কোনো বয়স নেই।’

উম্মে নিপা

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা