kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বার্লিন ম্যারাথনে বাংলাদেশি শিব শংকর পাল

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০৯:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বার্লিন ম্যারাথনে বাংলাদেশি শিব শংকর পাল

জার্মানির রাজধানী বার্লিনে ম্যারাথনে অংশগ্রহণ করেছেন জার্মানি প্রবাসী বাংলাদেশি শিব শংকর পাল। রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ১৫৭ দেশের প্রায় ৪৫ হাজার প্রতিযোগীর সঙ্গে বাংলাদেশের লাল-সবুজের পতাকা নিয়ে দৌড়ে অংশ নেন তিনি।

প্রতি বছর বসন্তকালে বার্লিনে উৎসবমুখর পরিবেশে এ ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হয়। ঐতিহাসিক এই ম্যারাথন দেখতে শহরের বিভিন্ন স্থানে জড়ো হয়েছিলেন হাজার হাজার দর্শনার্থী।

বিজ্ঞাপন

৪২ দশমিক ২ কিলোমিটার দূরত্বের এই ম্যারাথন শহরের বিভিন্ন স্থান ঘুরে ঐতিহাসিক ব্র্যান্ডেনবুর্গার গেটে এসে শেষ হয়। বাংলাদেশের নবাবগঞ্জে জন্মগ্রহণ করা শিব শংকর পাল ৪২ দশমিক ২ কিলোমিটারেরও বেশি দীর্ঘপথ দৌড় শেষ করেন ৩ ঘণ্টা ৪১ মিনিটে।

ব্র্যান্ডেনবুর্গ গেটে জার্মানিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া শিব শংকর পালকে স্বাগত জানান। তিনি এক ফেসবুক পোস্টে লেখেন, বার্লিন ম্যারাথন পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ম্যারাথন স্পটগুলোর অন্যতম। বলা হয় এটি পৃথিবীর ২য় বৃহত্তম। প্রতিবছর বসন্তকালে এখানে উৎসবমুখর পরিবেশে এ ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হয়। ২৫ সেপ্টেম্বর এবার এ ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হলো। রাস্তার দুই পাশে শতশত লোক দাঁডিয়ে ঢোল-বাদ্য বাজিয়ে অংশগ্রহণকারীদের উৎসাহ প্রদান করেন।

তিনি আরো লেখেন, ‘মিউনিখে বসবাসকারী বাংলাদেশি দৌড়বিদ শিব শংকর পাল তার নিজস্ব ১১৮তম ম্যারাথন সম্পন্ন করে আজ আমাদের সাথে মিলিত হয়েছেন। ৪২ দশমিক ১৯৫ কিলোমিটার ম্যারাথন শিব শংকর তিন ঘণ্টা ৪১ মিনিটে শেষ করেছেন। যেখানেই তিনি দৌড়ে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশের পতাকা তুলে ধরেন। যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ইউরোপ ও এশিয়ার বিভিন্ন দেশে তিনি ম্যারাথন অংশগ্রহণ করেন। ৫৭ বছর বয়সেও তার ধৈর্য ও একাগ্রতা ও স্ট্যামিনা দেখে আমি মুগ্ধ। ’
 
শিব শংকর পাল জার্মানির মিউনিখ শহরের একজন সফল ব্যবসায়ী। ১৯৯৯ সালে জার্মানির মিউনিখে পাল ইলেকট্রনিকস নামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন। তিনি মিউনিখ শহর কর্তৃপক্ষ থেকে একজন সফল ব্যবসায়ী হিসেবে পুরস্কারপ্রাপ্ত। ২০১৯ সালে জার্মানির বিখ্যাত টিভি চ্যানেল ‘জেডডিএফ’ শিব শংকর পালের সফলতা নিয়ে বিশেষ ডকুমেন্টারি প্রচার করে।



সাতদিনের সেরা