kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

তুরস্কে ‘প্রথম অর্থনৈতিক কূটনৈতিক সিম্পোজিয়াম’ অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ জুন, ২০২২ ০২:২৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তুরস্কে ‘প্রথম অর্থনৈতিক কূটনৈতিক সিম্পোজিয়াম’ অনুষ্ঠিত

আঙ্কারাস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে ‘প্রথম অর্থনৈতিক কূটনৈতিক সিম্পোজিয়াম’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ৯ জুন শুরু হয়ে শনিবার (১১ জুন) সিম্পোজিয়াম সমাপ্ত হয়। সমাপনী দিবসের শুরুতে তুরস্কে নিযুক্ত বাংলাদেশ রাষ্ট্রদূত মাসুদ মান্নান, এনডিসি আলোচকদের অর্থনৈতিক কূটনীতির বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনার জন্য আহবান জানান।

অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা বিজিএমইএ-এর প্রেসিডেন্ট ফারুক হাসান জুম এ্যাপসের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে অর্থনৈতিক কূটনীতির অংশ হিসাবে নিটওয়ার, টেক্সটাইল ও গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রির ভূমিকা, তুরস্কের এরসিস বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাষক শেখ তারকিশ ইসলাম পাভেল বাংলাদেশের উন্নয়নে চিকিৎসা বিজ্ঞান ও গবেষণার প্রভাব, ইস্তাম্বুল ইলডিজ টেকনিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ডক্টর এ.এফ.এম শাহেন শাহ বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে প্রযুক্তির ব্যবহার, কনিয়া ডেইক-এর প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট এরডিল ছিনমিস একজন ব্যবসায়ী হিসাবে বাংলাদেশ ভ্রমনের অভিজ্ঞতা, স্পেন থেকে জুম এ্যাপসের মাধ্যমে ব্যারিস্টার মোর্শেদ মান্নান ব্লক চেইন ও ক্রিপ্টো কারেন্সি-এর উপর আলোকপাত করেন।

বিজ্ঞাপন

সমাপনী বক্তব্যে তুরস্কে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত স্বাধীন রাষ্ট্র হিসাবে বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান এবং বাংলাদেশের চলমান উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রাখায় তাঁর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা করেন। রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের ভৌগলিক কৌশলগত গুরুত্ব, সাম্প্রতিক সময়ের আর্থ-সামাজিক অর্জন এবং আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে বাংলাদেশের উন্নয়নের স্বীকৃতি সম্পর্কেও আলোচনা করেন।

তিনি বাংলাদেশ ও তুরস্কের মাঝে বিদ্যমান উষ্ণ ও ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বাণিজ্যিক ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক আরো সম্প্রসারণের জন্য উভয় পক্ষের ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান।  

বাংলাদেশের চলমান উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় সম্পৃক্ত হয়ে বিদ্যমান বাণিজ্যবান্ধব পরিবেশের সুযোগ নেওয়ার জন্য তিনি তুর্কি ব্যবসায়ীদের আহ্বান জানান। সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় তুরস্কে বসবাসরত বাঙালিদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্য করার মতো। সদ্য সমাপ্ত সিম্পোজিয়ামের মাধ্যমে বাংলাদেশ ও তুরস্কের মাঝে ব্যাবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণে নতুন নতুন দিগন্তের উন্মোচন হবে এই আশাবাদ ব্যক্ত করে তিন দিনব্যাপী ‘প্রথম অর্থনৈতিক কূটনৈতিক সিম্পেজিয়াম’-এর সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।



সাতদিনের সেরা