kalerkantho

বুধবার । ২২ জানুয়ারি ২০২০। ৮ মাঘ ১৪২৬। ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

আর্জেন্টিনায় দূতাবাস খোলার কথা ভাবা হচ্ছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বিশেষ প্রতিনিধি, নিউইয়র্ক   

২৪ মার্চ, ২০১৯ ১২:১১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আর্জেন্টিনায় দূতাবাস খোলার কথা ভাবা হচ্ছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

‘আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনস্ আইরেসে বাংলাদেশের দূতাবাস খোলার বিষয়টি সরকারের সক্রিয় বিবেচনায় রয়েছে। তাছাড়া এখানে একজন অনারারি কনসাল নিয়োগের বিষয়টিও প্রক্রিয়াধীন আছে'। দেশটি সফরে থাকা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এসব কথা বলেন। 

গতকাল শনিবার বুয়েনস্ আইরেস মহানগরীর ক্যাস্টেলার হোটেলে ‘আর্জেন্টিনা-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি-এবিসিসিআই' আয়োজিত এক সংবর্ধনা সভায় যোগ দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। বাংলা, স্প্যানিশ ও ইংরেজি ভাষার মেলবন্ধনে বহুজাতিক ভাষা ও সংস্কৃতির আবহে অনুষ্ঠানটি পরিণত হয় এক মিলনমেলায়। উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন সংস্থাটির ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্গারেট পিকোরা। 

এসময় আর্জেন্টিনায় পূর্ণাঙ্গ দূতাবাস খোলার দাবি জানান সেখানে উপস্থিত প্রবাসীরা। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন তাদের বিভিন্ন দাবির কথা শোনেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রার কথা পররাষ্ট্রমন্ত্রী উপস্থিত প্রবাসী বাংলাদেশি ও আর্জেন্টিনাবাসীর সামনে তুলে ধরেন। 
পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে উঠে আসে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক অগ্রগতি; জিডিপি’র অব্যাহত প্রবৃদ্ধি; বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ; সবধরনের অবকাঠামোগত সুবিধা সম্বলিত একশটি বিশেষায়িত শিল্পাঞ্চল গঠন; বিদ্যুৎ ও জ্বালানির পর্যাপ্ততা; আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা; ওয়ান স্টপ সার্ভিস; দেশের উন্নয়নে প্রবাসীদের সম্পৃক্ত করতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের তত্ত্বাবধানে টাক্সফোর্স গঠন; প্রবাসী দিবস পালনসহ প্রবাসীদের কল্যাণে নেয়া নানা পদক্ষেপের কথা।

বাংলাদেশে গিয়ে এসব উন্নয়ন বাস্তবতা নিজ চোখে দেখার জন্যেও তিনি উপস্থিত অতিথিদের প্রতি আহ্বান জানান। বিদেশের দূতাবাসে প্রবাসী বাংলাদেশিদের সর্বোচ্চ সুবিধা নিশ্চিত করতে হটলাইন খোলা, বাংলাদেশে যাওয়া ও অবস্থানকালে প্রয়োজনীয় সেবা দিতে সরকারের কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া কথাও উল্লেখ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

নিজের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, 'আমি দীর্ঘ ৩৮ বছর প্রবাসে থেকেছি। আমি আপনাদেরই প্রতিনিধি। একজন প্রবাসী বাংলাদেশিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর মন্ত্রীসভার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব দিয়েছেন। প্রবাসীদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর ভালোবাসার এর থেকে বড় উদাহরণ আর কী হতে পারে'।

বুয়েন্স আইরেসে অনুষ্ঠিত জাতিসংঘের দক্ষিণ-দক্ষিণ সহযোগিতা বিষয়ক দ্বিতীয় উচ্চ পর্যায়ের সম্মেলনে বাংলাদেশের সফল অংশগ্রহণের কথা তুলে ধরেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। সেই সঙ্গে আর্জেন্টিনায় ভিসা সুবিধা বাড়ানোর জন্যে নেয়া উদ্যোগেও কথাও বলেন তিনি। 

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আর্জেন্টিনার নাগরিকদের বাংলাদেশের বন্ধু উল্লেখ করে ‘ফ্রেন্ডস অব লিবারেশন ওয়ার অনার’ অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত আর্জেন্টিনার লেখিকা ভিক্টোরিয়া ওকাম্পোর কথা স্মরণ করেন।

বক্তব্যে জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন ‘অর্থনৈতিক কূটনীতি’ ও প্রবাসী বাংলাদেশিদের নিয়ে ‘ডায়াসপোরা কূটনীতি’র বিভিন্ন ইতিবাচক দিক তুলে ধরার পাশাপাশি দক্ষিণ-দক্ষিণ সহযোগিতার আওতায় আগামী দিনগুলোতে দক্ষিণের দেশ আর্জেন্টিনার সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক আরো ইতিবাচক হবে মর্মে তাঁর প্রত্যাশার কথা জানান।

এবিসিসিআই'র সভাপতি বুয়েনস্ আইরেস প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ী তালুকদার আলীম আল রাজী তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশী সংস্কৃতি ও পণ্যের প্রসারে আর্জেন্টিনায় নানা ধরণের মেলায় আয়োজনের কথা উল্লেখ করেন। ২৩ এপ্রিল থেকে ১৩ মে তারা বুয়েনস্ আইরেস্-এ আন্তর্জাতিক বই মেলার আয়োজন করছে, যেখানে বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রকাশনা সংস্থা যোগ দেবে বলেও জানান তিনি। 

অনুষ্ঠানটিতে বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা ও প্রবাসীদেরকে বিনিয়োগে আকর্ষণ করা সংক্রান্ত দুটি ভিডিওচিত্র দেখানো হয়। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সুলতানা আফরোজ এবং বাংলাদেশ দুতাবাস ওয়াশিংটন ডিসি’র ডেপুটি চিফ অব মিশন মাহবুব হাসান সালেহ।

এর আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাপা+৪০ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন। এদিন নয়াদিল্লিতে আর্জেন্টিনার মনোনয়নপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করেন। এদিকে আর্জেন্টিনা ত্যাগের আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বুয়েনস্ আইরেসে বসবাসরত সিলেটবাসীর সাথে সাক্ষাৎ করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা