kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

ওমানপ্রবাসী অসুস্থ মাইমুনার পাশে চট্টগ্রাম সমিতি

বাবলু চৌধুরী, ওমান থেকে   

৭ মার্চ, ২০১৯ ১১:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ওমানপ্রবাসী অসুস্থ মাইমুনার পাশে চট্টগ্রাম সমিতি

জটিল রোগে আক্রান্ত ওমানপ্রবাসী বাংলাদেশি শিক্ষার্থী মাইমুনা হোসেনের পাশে দাঁড়িয়েছে চট্টগ্রাম সমিতি ওমান। বাংলাদেশ স্কুল মাসকাটের নবম শ্রেণির ছাত্রী মাইমুনার চিকিৎসা সহায়তায় ৮৫০ ওমানি রিয়াল (বাংলাদেশি প্রায় ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা) তার পরিবারকে দিয়েছে সমিতি।

সম্প্রতি মাসকাটের কোলা হাসপাতালে মাইমুনার পিতা ওমানপ্রবাসী পরিবহন কর্মী মোহাম্মদ খোরশেদ হোসেনের কাছে নগদ টাকা তুলে দেন চট্টগ্রাম সমিতি ওমানের সভাপতি মোহাম্মদ ইয়াছিন চৌধুরী সিআইপি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সমিতির উপদেষ্টা বাদল আনোয়ার, সিনিয়র সহসভাপতি নুরুল আমিন চৌধুরী, সহসভাপতি এস এম জসিম উদ্দিন, নুরুল ইসলাম নুরু, প্রকৌশলী আশরাফুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী তাপস বিশ্বাস, অর্থ সম্পাদক নাসির মাহমুদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জামাল চৌধুরী, কার্যকরী পরিষদের সম্পাদক ও সদস্য মহিউদ্দিন বাবু, তৌহিদ উল আলম, মোহম্মদ সেকান্দর, মো. রহিম উল্লাহ, মো. মান্নান, নিজাম উদ্দিন, মো. আব্বাস। 

সমিতির নেতারা মায়মুনার খোঁজ-খবর নেন এবং সম্ভাব্য সব ধরনের সহায়তার আশ্বাস দেন। মাইমুনার সবশেষ শারীরিক অবস্থা নিয়েও তারা কথা বলেন সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকদের সাথে। শঙ্কামুক্ত হলেও পুরোপুরি সুস্থ হতে আরো সময় লাগবে বলে জানিয়েছে চিকিৎসকরা।  

মস্তিষ্ক-ঝিল্লির প্রদাহ রোগে আক্রান্ত হয়েছে গত বছরের ডিসেম্বরে থেকে হাসপাতালে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন চট্টগ্রামের মেয়ে মাইমুনা। আইসিইউতে দীর্ঘ ৩ মাসেরই খরচ আসে ৭ হাজার রিয়াল (বাংলাদেশি প্রায় ১৬ লাখ)। এ টাকা দিতে অক্ষম তার পিতা সহযোগিতা কামনা করেন বাংলাদেশ দূতাবাসের। দূতাবাসের অনুরোধে এগিয়ে আসে চট্টগ্রাম সমিতি ওমান। সমিতি ছাড়াও শ্রীলঙ্কাসহ বিভিন্ন কমিউিনিট আর্থিক সহায়তায় দিয়েছে মাইমুনার চিকিৎসায়। 

চট্টগ্রামের আমিন জুট মিল এলাকার বাসিন্দা মোহাম্মদ খোরশেদ হোসেন পরিবার নিয়ে গত ১৫ বছর ওমান প্রবাসে রয়েছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা