kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

তিন নারীর পেটে মিলল তিন হাজার পিস ইয়াবা

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি   

২২ মে, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মরণ নেশা ইয়াবা এখন কৌশল পাল্টে মিয়ানমার থেকে টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে আসছে। পাচারকারীরা আগের মতো স্বাভাবিকভাবে সহজে ইয়াবা পাচার করতে না পেরে নিত্যনতুন কৌশল অবলম্বন করছে। কক্সবাজারের টেকনাফে এবার পেটের ভেতর বহন করে ইয়াবা পাচার করার সময় তিন রোহিঙ্গা নারীকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। টেকনাফস্থ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান সংবাদ সম্মেলনে জানান, গতকাল ভোররাতে টেকনাফের হোয়াইক্যং বিওপির নায়েব সুবেদার মো. সাদেক আলীর নেতৃত্বে একটি বিশেষ টহলদল চেকপোস্টে যানবাহন তল্লাশি করে। এ  কক্সবাজারগামী একটি বাস চেকপোস্টে পৌঁছলে কয়েকজন যাত্রীকে তল্লাশি করা হয়। এতে তিন নারীর পেটে ইয়াবা থাকার বিষয়টি সন্দেহ হয়। ওই তিন নারীকে টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এক্স-রে করলে পেটের ভেতরে ইয়াবা থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়।  আটক তিন নারী হলেন টেকনাফের হ্নীলা আলীখালী এলাকার জাফর আহম্মদের স্ত্রী নূর হাওয়া (৩৫), মৃত মো. ছিদ্দিকের স্ত্রী জরিনা খাতুন (৩৫) ও উত্তর আলীখালী এলাকার জুবাইর হোসেনের স্ত্রী সেতারা (৩০)। এঁরা সবাই পুরাতন রোহিঙ্গা বলে জানা যায়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা