kalerkantho

সোমবার। ২৭ মে ২০১৯। ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২১ রমজান ১৪৪০

নালিতাবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যানের গুলিতে কৃষক নিহত

শেরপুর প্রতিনিধি   

২৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার যোগানিয়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যানের গুলিতে এক কৃষক নিহত হয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। জমি নিয়ে বিরোধের জেরে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ইউনিয়নের কুত্তামারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় জড়িত অভিযোগে চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত ইদ্রিস আলী (৪৫) কুত্তামারা গ্রামের ফজর রহমানের ছেলে। অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হবি পলাতক রয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গতকাল সকালে কুত্তামারা গ্রামের সোহরাব আলী ১০ জন ধানকাটা শ্রমিকসহ চেয়ারম্যানের ভাতিঝি জামাই মাজর আলীর বাড়ির কাছে বিরোধপূর্ণ আড়াই একর জমির ধান কাটতে যান। এ সময় মাজর তাঁর লোকজনসহ সোহরাবের ওপর হামলা করেন ও ধান কাটতে বাধা দেন। সোহরাব শ্রমিকদের নিয়ে বাড়ি চলে আসেন এবং আশপাশের স্বজনদের খবর দেন। পরে সবাই মিলে দুপুর ১টার দিকে ফের ধান কাটতে গেলে চেয়ারম্যান তাঁর লোকজন নিয়ে দেশীয় অস্ত্রসহ সোহরাব ও তাঁর লোকদের ধাওয়া করেন। সোহরাব লোকজনসহ ভাইয়ের বাড়িতে আশ্রয় নেন। সেখানে গিয়ে চেয়ারম্যান অস্ত্রসহ হুমকি দিতে থাকেন। তখন উভয় পক্ষের মধ্যে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ শুরু হলে চেয়ারম্যান তাঁর সঙ্গে থাকা আগ্নেয়াস্ত্র বের করে গুলি চালান। এতে সোহরাবের চাচাতো ভাই ইদ্রিস গুলিবিদ্ধ হয়ে জ্ঞান হারান। স্বজনরা তাঁকে দ্রুত নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নালিতাবাড়ী থানার ওসি মো. আবুল খায়ের বলেন, ঘটনাস্থল থেকে গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে মাজর আলীসহ পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে।

মন্তব্য