kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ মে ২০১৯। ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৫ রমজান ১৪৪০

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ

গাজীপুরে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সম্পত্তি জালিয়াতির চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মালিক জানেন না সম্পত্তি বিক্রির বায়না করা হয়ে গেছে। বায়না দলিলে সম্পত্তির মালিক হিসেবেও তাঁর স্বাক্ষর নেই। তবে উল্লেখ রয়েছে, পাওয়ার অব অ্যাটর্নি দেওয়া হয়েছে আলিম উদ্দিন ও মো. মুজিবর রহমানকে। অথচ মালিক হিসেবে বৈধ কাগজপত্র থাকার পরও ৮ দশমিক ২৫ একর সম্পত্তি হারানোর ভয়ে আছে গাজীপুর সদরের দক্ষিণ ছায়াবিথী এলাকার এক মুক্তিযোদ্ধা পরিবার।

মুক্তিযোদ্ধা হারুন-অর-রশীদ ভূঁইয়ার মালিকানাধীন এই সম্পত্তি আত্মসাতের অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে তাঁর পরিবার। গতকাল বুধবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে তাঁর স্ত্রী কানিজ ভূঁইয়া এই অভিযোগ করেন।

কানিজ ভূঁইয়া বলেন, ‘২০১৬ সালে আমার স্বামীর দুই ভাই ও পাঁচ বোন মিলে তাদের আরেক বোনের স্বাক্ষর জাল করে ভুয়া পাওয়ার অব অ্যাটর্নির (৫৮৫৪) মাধ্যমে পৈতৃক সম্পত্তি থেকে নাম বাদ দিয়ে ৮ দশমিক ২৫ একর সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করার চেষ্টা চালায়। কাজী আলিম উদ্দিন ও মো. মুজিবর রহমানের পরিকল্পনায় এই তৎপরতা এখনো চলছে।’

পরিবারের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে কানিজ ভূঁইয়া বলেন, ‘জালিয়াতচক্র আমাদের ক্ষতি করতে পারে। তাই গত ১০ মার্চ গাজীপুর সদর থানায় জিডি করা হয়েছে।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন হারুন-অর-রশীদের ছেলে আশিফ রশিদ, ফুফাতো বোন সুরাইয়া বেগম এবং দুই বোন গুলনাহার বেগম ও জিন্নাত আরা বেগম। আশিফ রশিদ কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘কোর্টের রায়ের পরও আমাদের জায়গা ভুয়া কাগজ বানিয়ে বিক্রির পাঁয়তারা চলছে। পুলিশের কাছে গিয়েও সহযোগিতা পাইনি।’

মন্তব্য