kalerkantho

বুধবার । ২২ মে ২০১৯। ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৬ রমজান ১৪৪০

কেরানীগঞ্জে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার

আরো চার উপজেলায় চার ধর্ষণ মামলা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৪ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের আইনতা সরিঘাট এলাকায় ঘুরতে গিয়ে এক কিশোরী (১৪) গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা করলে গত সোমবার রাতে অভিযান চালিয়ে ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠায় পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার তারা আদালতে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে।

এ ছাড়া মানিকগঞ্জের সিংগাইরে এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। দিনাজপুরের পার্বতীপুর ও ফরিদপুরের সালথায় অভিযোগে মামলা করা হয়েছে। ঝিনাইদহের মহেশপুরে ধর্ষণে অভিযুক্ত ব্যক্তির বিচার দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছে। বরিশালের হিজলা উপজেলার এক মাদরাসাছাত্রী ধর্ষণের বিচার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে।

কথার প্যাঁচে ফেলে নিয়ে গণধর্ষণ : দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আশিকুজ্জামান জানান, গত শনিবার (২০ এপ্রিল) বিকেলে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের এক কিশোরী আইনতা সারিঘাট এলাকায় ঘুরতে যায়। সেখানে তাকে আকাশ (২২) নামের এক যুবক তাঁর বাড়িতে যাওয়ার প্রস্তাব দেন। মেয়েটি প্রস্তাবে রাজি না হলে আকাশ রায়হান (২৬) নামের আরেকজনকে ডাকেন। রায়হান মেয়েটির পূর্বপরিচিত। রায়হান এসে মেয়েটিকে কথার প্যাঁচে ফেলে সারিঘাট এলাকায় একটি শুকনো নদীর ওপারে ঘুরতে নিয়ে যান। সেখানে নির্জন স্থানে নিয়ে আট-দশজন মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। হৃদয় নামের একজন মেয়েটিকে হত্যার চেষ্টাও চালায়। পরে অভিযুক্তরা চলে যায়। মেয়েটি বাড়িতে গিয়ে স্বজনদের বিষয়টি জানায়। মেয়েটির বোন বাদী হয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় একটি ধর্ষণের মামলা করেন।

পরিদর্শক (তদন্ত) বলেন, ‘মামলা হওয়ার পর আমরা প্রথমে অভিযুক্তদের নাম-ঠিকানা ও তাদের অবস্থান শনাক্ত করি। এরপর সোমবার রাতে থানা এলাকার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে ছয় ধর্ষককে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হই। আশা করি বাকি আসামিদের দু-এক দিনের মধ্যে গ্রেপ্তার করতে পারব। গ্রেপ্তারকৃতরা মঙ্গলবার আদালতে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে।’ মামলার বাদী বলেন, ‘এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তার করে সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।’

সিংগাইরে শিশু ধর্ষিত : মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলায় গত রবিবার এক মানসিক প্রতিবন্ধী শিশুকে (১১) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত উপজেলার মধ্য ধল্লা গ্রামের আল আমীনের (২৫) বিরুদ্ধে থানায় মামলা করা হয়েছে। আল আমীন গ্রামটির রফিজুদ্দিনের ছেলে। শিশুটির পরিবারের অভিযোগ, ঘটনাটি গ্রাম্য মাতবর ও জনপ্রতিনিধিরা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল। মামলা সূত্রে জানা গেছে, আল আমীন রবিবার সকালে শিশুটিকে খাবার খাওয়ার প্রলোভন দিয়ে একটি কাঠবাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে।

পার্বতীপুরে ধর্ষণ মামলা, মাইকিং করে সালিস : দিনাজপুরের পার্বতীপুরে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় রবিবার রাতে ছাত্রীটির বাবা পার্বতীপুর মডেল থানায় মামলা করেছেন। মামলার আগে ঘটনা মীমাংসায় গ্রামে মাইকিং করে সালিস বৈঠক ডাকা হয়। মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের উত্তর বাসুপাড়া গ্রামের আবেদুল ইসলাম সাজু (২৫) গত ১৭ এপ্রিল রাতে ওই ছাত্রীকে বাড়ির বাইরে থেকে মুখ চেপে ধরে নিজ বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করেন। ভোরে ছাত্রীটির চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এলে সাজু পালান।

রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান একরামুল হক বলেন, দ্বিতীয় সালিস বৈঠকে সাজু ধর্ষণের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। সাজু মেয়েটিকে বিয়ে করতে রাজি হলেও মেয়েটির বয়স ১৮ বছরের সাত মাস কম হওয়ায় বিয়েটি হয়নি।

ফরিদপুরে ধর্ষণ ও ভিডিওর ঘটনায় মামলা, গ্রেপ্তার ১ : ফরিদপুরের সালথায় নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৫) ধর্ষণ ও ধর্ষণের দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ এবং পরে ওই দৃশ্য ফেসবুকে ছাড়ার ঘটনায় মামলা হয়েছে। গত ৫ এপ্রিল রাতের ধর্ষণের ঘটনায় সোমবার বিকেলে সালথা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ও পর্নোগ্রাফি আইনে মামলাটি করেন মেয়েটির ভাই। মামলার এক আসামি উপজেলার গট্টি ইউনিয়নের যুগীকান্দা লক্ষ্মণদিয়া গ্রামের শাকিল ফকিরকে (১৯) সোমবার রাতে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আরেক আসামি শাকিলের বন্ধু জাবের মাতুব্বর (২০)। ছাত্রীটির পরিবার জানায়, ধর্ষণে অভিযুক্তরা ঘটনা প্রকাশ না করতে ছাত্রীর পরিবারের সদস্যদের হত্যার হুমকিও দেয়।

মহেশপুরে ধর্ষণে অভিযুক্তের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন : ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার সেজিয়া বাজারের নাজ ফার্মেসিতে শনিবার চিকিৎসা নিতে গিয়ে এক স্কুলছাত্রী চিকিৎসকের ধর্ষণের শিকার হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত পল্লী চিকিৎসক সাইফুল ইসলামের শাস্তির দাবিতে ছাত্রীর বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা গতকাল মানববন্ধন করেছে। সাইফুলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মানববন্ধনে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও চেয়ারম্যান সামছুল আলম মৃধা, শিক্ষক সামসুজ্জোহা পান্নাসহ নেপা ইউনিয়নের যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতারা বক্তব্য দেন।

বরিশালে বিচার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন : বরিশালের হিজলা উপজেলার এক মাদরাসাছাত্রী ধর্ষণের বিচারের দাবিতে গতকাল বরিশাল প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে। মেয়েটির বাবা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন। মেয়েটি লিখিত বক্তব্যে বলে, উপজেলার চর মেমানিয়া গ্রামের নূরুল হক গাজীর ছেলে বখাটে সজিব গাজী মেয়েটিকে মাদরাসায় যাওয়ার পথে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত। ৩০ মার্চ সন্ধ্যায় মেয়েটির অভিভাবকদের অনুপস্থিতির সুযোগে ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করে সজিব। এ নিয়ে থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ ধর্ষণের পরিবর্তে ধর্ষণচেষ্টার মামলা নেয়।

প্রতিবেদনটি তৈরিতে তথ্য দিয়ে সহায়তা করেছেন কেরানীগঞ্জ (ঢাকা), সিংগাইর (মানিকগঞ্জ), পার্বতীপুর (দিনাজপুর) ও ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর ও বরিশাল অফিস।

মন্তব্য