kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

রামপুরায় লুট দুই কোটি টাকার প্রসাধনীসামগ্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর রামপুরা থানার বনশ্রী এলাকার ‘স্টে ইন’ নামে একটি প্রসাধনীসামগ্রীর দোকান থেকে দুই কোটি টাকার মালামাল ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় রামপুরা থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। এ ঘটনায় সাইফুল ইসলাম টিটুসহ অজ্ঞাতপরিচয় চারজনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার বাদী ‘স্টে ইন’ প্রতিষ্ঠানের মালিক আবির খান এজাহারে বলেছেন, গত রবিবার দিবাগত রাতে তাঁর দুই কোটি টাকার মালামাল লুট হয়েছে। এতে সাইফুল ও তাঁর লোকজন জড়িত। 

আবির খান দাবি করেন, গত বছর ১ মার্চ বনশ্রীর ডি ব্লকের ৫ নম্বর সড়কের ১২ নম্বর বাড়ির নিচতলায় একটি দোকান আট লাখ টাকা অগ্রিম ও মাসে ৩৮ হাজার টাকা ভাড়া এবং দুই হাজার টাকা সার্ভিস চার্জ দেওয়ার চুক্তিতে পাঁচ বছরের জন্য ভাড়া নেন তিনি। এরপর ১ এপ্রিল দোকানটি ভাড়া নেওয়ার পর সাজসজ্জায় তিনি ব্যয় করেন ৪০ লাখ টাকা। গয়না, শাড়ি, পাঞ্জাবি, মেয়ে ও শিশুদের পোশাক, জুতাসহ শোরুমে প্রসাধনীসামগ্রী ওঠান তিনি। বাড়ির মালিক হারুনুর রশিদ যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী। তাঁর শ্যালক সাইফুল ইসলাম টিটু বাড়িটি তত্ত্বাবধান করেন। কয়েক মাস পর সাইফুল ইসলাম তাঁকে দোকান খুলতে বাধা দেন। তাঁর কর্মচারীদের মারধর করতে থাকেন। একপর্যায়ে তাঁকেও মেরে ফেলার হুমকি দেন। এ ঘটনায় রামপুরা থানায় দুটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন তিনি। এসব ঘটনার পর বনশ্রী সোসাইটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের হস্তক্ষেপে তিনি দোকানটি চালু করেন। কিন্তু গত রবিবার রাতে সাইফুল ও তাঁর লোকজন দোকানের তালা ভেঙে তাঁর লোকজনকে মারধর করে দুই কোটি টাকার মালামাল লুট করেছে।

মন্তব্য