kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ মে ২০১৯। ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৭ রমজান ১৪৪০

শ্রীলঙ্কায় হামলা

আগাম তথ্য থাকলেও সমন্বয় ছিল না

আ ন ম মনিরুজ্জামান

২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আগাম তথ্য থাকলেও সমন্বয় ছিল না

সম্প্রতি দক্ষিণ এশিয়াসহ অন্যান্য দেশে যেসব সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে তার মধ্যে শ্রীলঙ্কায় গত রবিবারের সিরিজ হামলা হচ্ছে সবচেয়ে বড় ও ভয়াবহ। একসঙ্গে দেশটির আটটি স্থানে চালানো হয়েছে এই হামলা। ধরন দেখে বোঝা যাচ্ছে, বড় ধরনের ক্ষতির লক্ষ্য নিয়ে পরিকল্পিতভাবে চালানো হয়েছে হামলাটি। 

গির্জায় হামলার পেছনে ধর্মীয় বিষয় থাকতে পারে। একই সঙ্গে বিদেশিদের এর শিকার বানাতে পাঁচতারা হোটেলে পরিকল্পিতভাবে এই হামলা চালানো হয়ে থাকতে পারে।

আশঙ্কা করা হচ্ছে যে সিরিয়া থেকে বিতাড়িত হওয়ার পর আইএস নতুন নতুন জায়গায় তাদের কর্মকাণ্ড ও প্রভাব বিস্তার করার চেষ্টায় রত আছে। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে আইএসের বিরোধ না থাকলেও অনেক সময় ‘সফট টার্গেট’ (তুলনামূলক দুর্বল লক্ষ্য) খোঁজে তারা। শ্রীলঙ্কায় একসময় গৃহযুদ্ধ ছিল। এখন শান্তি বিরাজ করছে। কাজেই আগে যে ধরনের নিরাপত্তাবলয় দেশটির আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নিত, সে ধরনের নিরাপত্তাবলয় বর্তমানে নেই বললেই চলে।

বেশ কয়েকটি সংস্থার খবর বিশ্লেষণে দেখা যাচ্ছে, এই হামলা সম্পর্কে আগাম কিছু গোয়েন্দা তথ্য ছিল কর্তৃপক্ষের কাছে। কিন্তু তথ্যগুলো সম্পূর্ণভাবে তারা নজরে আনেনি অথবা নজরে আনলেও সংস্থাগুলোর মধ্যে সমন্বয় ছিল না। এ কারণেই শ্রীলঙ্কা ছিল ‘সফট টার্গেট’—এমনটা মনে হতে পারে।

আপাতদৃষ্টিতে এই হামলার সঙ্গে রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে মনে হচ্ছে না। তবে রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি মনে না হলেও এই মুহূর্তে কোনো কিছুই নাকচ করা যাবে না।

মেজর জেনারেল (অব.) আ ন ম মনিরুজ্জামান : নিরাপত্তা বিশ্লেষক ও বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সিকিউরিটি স্টাডিজের প্রেসিডেন্ট।

[বিবিসি বাংলা রেডিওকে দেওয়া সাক্ষাৎকার অবলম্বনে]

মন্তব্য